আশাশুনিতে আবারও ৬শ বোতল ফেন্সিডিলসহ ৩ ব্যক্তি গ্রেপ্তার


প্রকাশিত : এপ্রিল ৪, ২০১২ ||

আহসান হাবিব, আশাশুনি : আশাশুনিতে আবারও ৬শ বোতল ফেন্সিডিলসহ মাদক চালান চক্রের ৩ ব্যক্তিকে গ্রেপ্তার করেছে থানা পুলিশ। ঘটনাস্থল থেকে ১টি ইঞ্জিন ভ্যান ও ১টি চায়না মোটর সাইকেল উদ্ধার করা হয়েছে। পুলিশ সুত্রে জানাগেছে, সোমবার দিবাগত রাত সাড়ে ১০টায় ফেন্সিডিল ভর্তি একটি ইঞ্জিনভ্যান উপজেলার ঘোলা-ত্রিমোহিনীর দিকে যাচ্ছিল। তার পিছনে একটি চায়না ডায়াং (অনটেষ্ট) মোটর সাইকেলে ২জন মাদক বিক্রেতা পাহারারত অবস্থায় ছিল। পথিমধ্যে সদর ইউনিয়নের কোদণ্ডা গ্রামের জনৈক আজহারুল ইসলামের বাড়ীর সামনে পিচের রাস্তায় পৌঁছালে সংশ্লিষ্ট ইউপি সদস্য আব্দুস সাত্তার ভ্যানটি থামিয়ে তাদের চ্যালেঞ্জ করে। সাথে সাথে স্থানীয় লোকজনের সহযোগীতায় ভ্যানে তল্লাসী চালিয়ে ৪ বস্তা ফেন্সিডিল পাওয়া গেলে তিনি আশাশুনি থানা পুলিশে খবর দেন। খবর পেয়ে এসআই সুশীল বিশ্বাস ঘটনাস্থলে পৌঁছানোর আগেই মাদকসেবীরা ঘটনাস্থল থেকে কয়েক বোতল ফেন্সিডিল পান করে বলে জানাগেছে। পুলিশ ঘটনাস্থল থেকে ৬শ বোতল ফেন্সিডিল সহ বহনকারী ১টি ইঞ্জিন ভ্যান ও ১টি ডায়াং মোটর সাইকেল উদ্ধার করে থানায় নিয়ে আসে। এ সময় মাদক চালান চক্রের তিন সদস্য ভ্যান চালক সাতক্ষীরা সদর থানার জোড়দিয়া গ্রামের শেখ নুরুজ্জামানের পুত্র তারিকুল (২০), মোটর সাইকেল চালক দেবহাটা থানার নারিকেলি গ্রামের মাওলা বক্স সরদারের পুত্র নাজমুল হোসেন (২৫) ও আরোহী একই থানার সখিপুর গ্রামের গোলাম মোস্তফার পুত্র রফিকুল ইসলাম (৩২) কে আটক করা হয়। এ ব্যাপারে আশাশুনি থানায় মাদকদ্রব্য নিয়নন্ত্রণ আইন ১৯ (১) ধারায় ২ (০৪) ১২নং একটি মামলা দায়ের করেন। আসামীদের কোর্ট হাজতে প্রেরণ করা হয়েছে। উল্লেখ্য, ২৪ ঘন্টার ভিতরে র‌্যাব ও পুলিশ পৃথক দুটি অভিযানে ৮শ ১১ বোতল ফেন্সিডিল উদ্ধার করায় এলাকার সচেতন মহলের মুখে হাসি ফুটে উঠেছে।