লড়াই, বাঘের সাথে


প্রকাশিত : September 17, 2012 ||

মোশারফ হোসেন, মুন্সিগঞ্জ (শ্যামনগর): বাঘের সাথে দশ মিনিটেরও বেশী সময় লড়াই করে শহিদুল ইসলাম নামের এক সহযোগীকে জীবিত অবস্থায় ফিরিয়ে এনেছে সহযোগী অপর এক জেলে।

শনিবার বিকাল তিনটার দিকে পশ্চিম সুন্দরবনের চুনকুড়ি এলাকার মাথাভাঙা নদীর চরে এ ঘটনা ঘটে। আহত জেলের নাম শহিদুল ইসলাম (৫০)। তিনি কয়রা উপজেলার ৪নং কয়রা গ্রামের আরমান সরদারের ছেলে। তাৎক্ষণিক আহত জেলেকে হরিনগর বাজারে নিয়ে চিকিৎসা দেয়া হয়।

আহত জেলের সহযোগী ইমান আলী জানান, গতকাল সকালে কদমতলা স্টেশন থেকে অনুমতিপত্র নিয়ে তারা দু’জন মিলে চুননকুড়ি এলাকায় যায় মাছ ধরতে যায়। তিনি আরও জানান, বিকাল তিনটার দিকে ভাটা পড়ে যাওয়ায় মাথাভাঙা নদীর চরে নেমে জাল গুটানোর সময় একটি বাঘ শহিদুল ইসলামের উপর ঝাপিয়ে পড়ে। এসময় বাঘটি শহিদুল ইসলামের পশ্চাতদেশে কামড়ে ধরে তাকে বনের মধ্যে নিয়ে যাওযার চেষ্টা করে। তখন নিজ হাতে থাকা লাঠি দিয়ে উপুর্যপরি আঘাত শুরু করেন তিনি। এক পর্যায়ে ক্ষুধার্ত দুর্বল বাঘটি শিকারকে ছেড়ে দিয়ে বনের মধ্যে চলে যায় বলে ইমান আলী জানান।

এ ঘটনার পরপরই আহতকে দ্রুত হরিনগর বাজারে নিয়ে এসে সেখানে তাকে চিকিৎসা দেয়া হয়। এ বিষয়ে কদমতলা স্টেশন অফিসার মাজহারুল ইসরাম জানান, তিনি ছুটিতে রয়েছেন। তবে এমন একটি ঘটনার কথা তিনি জেনেছেন বলেও জানান।