কুলিয়ায় শহীদ মিনার উদ্বোধন

 

নিজস্ব প্রতিনিধি: স্বাস্থ্য ও পরিবার কল্যাণ মন্ত্রী অধ্যাপক ডা. আ ফ ম রূহুল হক বলেছেন, সরকার জনগণের দোর গোড়ায় স্বাস্থ্য সেবা পৌঁছে দিতে সক্ষম হয়েছে। বিনা চিকিৎসায় কোন মানুষ যাতে ধুকে ধুকে না মরে সেজন্য সরকার স্বাস্থ্য বিভাগকে ঢেলে সাজিয়েছে। বিগত ৪ দলীয় জোট সরকারের আমলে বন্ধ হয়ে যাওয়া সকল কমিউনিটি ক্লিনিক চালু হয়েছে। এতে করে গ্রাম গ্রামান্তরের মানুষ সহজে স্বাস্থ্য সেবা পাচ্ছে। গ্রামের মানুষ যাতে সহজে স্বাস্থ্য সেবা পায় সেজন্য ডাক্তার ও নার্সদের গ্রামে গ্রামে যেতে হচ্ছে। স্বাস্থ্যমন্ত্রী বলেন, বর্তমান সরকার ক্ষমতায় আসার পর দেশের প্রায় ১৪ হাজার কমিউনিটি সেন্টার চালু হয়েছে। এতে ৩৩ হাজার নার্স নিয়োগ করা হয়েছে। সরকার ৫০ হাজার বেকার যুবক-যুবতীতে চাকুরির মাধ্যমে কর্মসংস্থার সৃষ্টি করেছে। দারিদ্র ও বেকারত্ব দূরীকরণে বর্তমান সরকার দেশের নতুন প্রজন্মকে আশার আলো দেখিয়েছে। স্বাস্থ্য সেবার পাশাপাশি কৃষি সেবারও দ্বার উন্মোচন করেছে। কুলিয়ায় কেন্দ্রীয় শহীদ মিনার উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে ডা. আ ফ ম হক এসব কথা বলেন। কুলিয়া ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান ও জেলা আওয়ামী লীগ’র অর্থ সম্পাদক আসাদুল হকের সভাপতিত্বে বিশেষ অতিথির বক্তব্য রাখেন জেলা পরিষদ প্রশাসক মুনসুর আহম্মদ, দেবহাটা উপজেলা চেয়ারম্যান স ম গোলাম মোস্তফা, সাতক্ষীরা জেলা শ্রমিকলীগ’র সভাপতি ও মিনিবাস বাস মালিক সমিতির সভাপতি সাইফুল করিম সাবু। অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন জেলা আওয়ামী লীগ’র সাংগঠনিক সম্পাদক ফিরোজ আহম্মেদ, দপ্তর সম্পাদক আজিবর রহমান, উপ-দপ্তর সম্পাদক মোশারফ হোসেন মন্টু, পৌর আওয়ামী লীগ’র সাধারণ সম্পাদক শাহাদত হোসেন, কুলিয়া ইউপি সদস্য সেলিম রেজা সবুজ, ফতেমা খাতুন, রনকুল ইসলাম রিপন প্রমুখ। অনুষ্ঠান পরিচালনা করেন শিক্ষক জাহাঙ্গীর কবির ও সঞ্চয় কুমার সরকার।