আন্তর্জাতিক নারী দিবসে ‘এগিয়ে যাওয়ার প্রত্যয়’


প্রকাশিত : মার্চ ৯, ২০১৩ ||

ডেস্ক রিপোর্ট: ‘নারীর তথ্য জানার অধিকার, ডিজিটাল বাংলাদেশ গড়ার অঙ্গীকার’ এ প্রতিপাদ্যকে সামনে রেখে জেলায় নানা কর্মসূচি ও এগিয়ে যাওয়ার প্রত্যয়ে পালিত হয়েছে আন্তর্জাতিক নারী দিবস। এ উপলক্ষে জেলা প্রশাসন ও জেলা মহিলা বিষয়ক অধিদপ্তরসহ বিভিন্ন সামাজিক-সাংস্কৃতিক সংগঠন আলোচনা সভা, র্যালী, সাংস্কৃতিক ও সম্মাননা প্রদান অনুষ্ঠানের আয়োজন করে। আমাদের শহরসহ বিভিন্ন এলাকার আঞ্চলিক প্রতিনিধিদের পাঠানো খবর-
সাতক্ষীরা: জেলা প্রশাসন ও জেলা মহিলা বিষয়ক অধিদপ্তরের উদ্যোগে ও বিভিন্ন বেসরকারি প্রতিষ্ঠানের সহযোগিতায় শুক্রবার সকাল ৯টায় শহীদ আব্দুর রাজ্জাক পার্কে থেকে একটি র্যালী বের হয়। র্যালীটি শহরের প্রধান প্রধান সড়ক প্রদক্ষিণ শেষে পৌর অডিটরিয়ামের সামনে গিয়ে শেষ হয়।
সকাল ১০টায় সেখানে অনুষ্ঠিত হয় আলোচন সভা। আলোচনা সভায় জেলায় নারী উন্নয়নে বিশেষ অবদান রাখার জন্য সদর উপজেলা ভাইস চেয়ারম্যান এড. শাহানাজ পারভীন মিলি, এড. নাজমুন নাহার ঝুমুর ও কাউন্সিলর ফরিদা আক্তার বিউটিকে সম্মাননা প্রদান করা হয়।
আলোচনা সভায় আত্মকাহিনী তুলে ধরে রিওপা সদস্য নাজমা খাতুন বলেন, পরিবার ও সমাজ, কোন স্থান থেকে নারীদের অধিকার দিতে চায় না। তবে বর্তমান সরকার নারীদের অধিকার আদায়ে বিভিন্নভাবে সহযোগিতা করে যাচ্ছে। আমাদেরও সে অধিকার আদায়ে এগিয়ে আসতে হবে। আমি সমাজে ও পরিবারে নানাভাবে নির্যাতিত হয়েছি। আজ আমার ১০-১২ বছরের ছেলেকে পড়াশুনা না করিয়ে সংসার চালাতে কাজ করাতে হচ্ছে। এসময় তিনি নারী নির্যাতন প্রতিরোধে প্রশাসনের পাশাপাশি সমাজে নির্যাতিত ও অবহেলিত নারীদের এগিয়ে আসার আহবান জানান।
সভায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে সদর উপজেলা চেয়ারম্যান নজরুল ইসলাম বলেন, নারীদের সকল স্থানে অংশগ্রহণ বেড়েছে। সামাজিক উন্নয়নে এবং দেশের অর্থনৈতিক উন্নয়নে নারীদের আরো বেশি বেশি অবদান রাখতে হবে। এসময় তিনি সাঈদীকে চাঁদে দেখা গেছে এমন গুজবের কথা উল্লেখ করে বলেন, একটি বিশেষ মহল যুদ্ধাপরাধীদের বিচার বানচাল করতে দেশে সন্ত্রাসী কর্মকাণ্ডে লিপ্ত হচ্ছে এবং নারীদের মধ্যে বিভ্রান্তিকর অপ-প্রচার চালিয়ে বিভ্রান্ত করছে। এ থেকে সাবধান থাকতে হবে এবং দেশের শত্রুদের সকল সড়যন্ত্র প্রতিহত করতে নারীদের এগিয়ে আসতে হবে।
আলোচনা সভার শুরুতে সমবেত কণ্ঠে জাতীয় সংগীত গাওয়া হয়। সভায় জেলা মহিলা বিষয়ক কর্মকর্তা তারাময়ী মুখার্জীর সভাপতিত্বে পৌর মেয়র এম এ জলিল ও সাতক্ষীরা পারিবারিক নির্যাতন প্রতিরোধ জোটের চেয়ারম্যান প্রফেসর আব্দুল হামিদ বিশেষ অতিথির বক্তব্য রাখেন।
অন্যান্যদের মধ্যে বক্তব্য রাখেন নারী নেত্রী ফজিলা বেগম ও সালেহা হক কেয়া, তহমিনা আক্তার, হাসিবুজ্জামান, মাসুদ রানা, শহীদ হোসেন, পূর্নিমা, জোসনা দত্ত ও সরদার গিয়াস উদ্দীন। স্বাগত বক্তব্য রাখেন এড. নাজমুন নাহার ঝুমুর। সভা পরিচালনা করেন মাধব চন্দ্র দত্ত।
তালা: ‘নারীর তথ্য পাওয়ার অধিকার-ডিজিটাল বাংলাদেশ গড়ার অঙ্গীকার’ এই প্রতিপাদ্যকে সামনে রেখে তালায় বিভিন্ন সংস্থার উদ্যোগে আর্ন্তজাতিক নারী দিবস পালিত হয়েছে। এ উপলক্ষে শুক্রবার সকালে বেসরকারি সংস্থা উত্তরণ, ভূমিজ ফাউন্ডেশন, উইমেন জব ক্রিয়েশন সেন্টার ও যুগের যাত্রীর উদ্যোগে র্যালী ও আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত হয়।
উত্তরণের আয়োজনে ও জিএইচআরডি’র সহযোগিতায় মোবারকপুর আইডিআরটিতে অনুষ্ঠিত আলোচনা সভায় সভাপতিত্ব করেন উত্তরণের সমন্বয়কারী বেনেডিষ্ট পরেশ সরদার। এসময় উইমেন জব ক্রিয়েশন সেন্টারের নির্বাহী পরিচালক আশরাফুন্নাহার আশা, রুপালী পরিচালক সফিকুল ইসলাম, উত্তরণ কর্মকর্তা বদিউজ্জামান, সাধনা রানী গুহ, সুজিত নন্দী ও গ্রুপ সদস্য অনিতা রানী বক্তব্য রাখেন।
এদিকে তালা শিল্পকলা একাডেমী মিলনায়তনে মহিলা বিষয়ক অধিদপ্তর, রিলিফ ইন্টারন্যাশনাল ও যুগের যাত্রী সংস্থার উদ্যোগে এবং ইউরোপিয় ইউনিয়নের সহযোগিতায় অনুষ্ঠিত আলোচনা সভায় বক্তব্য রাখেন উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান ঘোষ সনৎ কুমার, উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মাহবুবুর রহমান, মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান মোস্তারী সুলতানা পুতুল, অধ্যক্ষ শেখ আব্দুল মালেক, অধ্যক্ষ আব্দুর রহমান, মহিলা বিষয়ক কর্মকর্তা নূরুন নাহার আক্তার, যুগের যাত্রী সংস্থার পরিচালক ইমদাদুল হক এবং পিও আব্দুল্লাহ।
অপরদিকে ভূমিজ ফাউন্ডেশনের আয়োজনে এবং একশনএইডের সহায়তায় ভূমিজ অফিস প্রাঙ্গণে অনুষ্ঠিত আলোচনা সভায় সভাপতিত্ব করেন নারী অন্ত্যজ পরিষদের সভানেত্রী হাসি রানী সরকার। সভায় বক্তব্য রাখেন মোমিনুল হক, মহিরুল ইসলাম বাবুল, সাবিত্রী দাস, সফিকুল ইসলাম, লিপিকা সুলতানা, ভবানী সরকার, মমতা হালদার, কৃষ্ণা দাস, সামিনা বেগম, অঞ্জন দে, রাজেশ্বর দাস, নাসরিন সুলতানা, শ্যামল দেবনাথ প্রমুখ।
শ্যামনগর: ‘নারীর তথ্য পাওয়ার অধিকার, ডিজিটাল বাংলাদেশ গড়ার অঙ্গীকার’ এ প্রতিপাদ্যকে সামনে রেখে শুক্রবার সকালে শ্যামনগর উপজেলা প্রশাসন, মহিলা বিষয়ক অধিদপ্তর ও জাতীয় মহিলা সংস্থার আয়োজনে আন্তর্জাতিক নারী দিবস পালিত হয়েছে।
এ উপলক্ষে ব্যানার, ফেস্টুনসহ এক বর্ণাঢ্য র্যালী শ্যামনগরের বিভিন্ন সড়ক প্রদক্ষিণ শেষে উপজেলা অডিটরিয়ামে শ্যামনগর উপজেলা নির্বাহী অফিসার দৌলতুজ্জামান খাঁনের সভাপতিত্বে এক আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত হয়।
সভায় বক্তব্য রাখেন, উপজেলা সিনিয়র মৎস্য কর্মকর্তা রাজ কুমার বিশ্বাস, জাতীয় মহিলা সংস্থার চেয়ারম্যান অধ্যাপক শাহানা হামিদ, নকশীকাঁথা পরিচালক চন্দ্রিকা ব্যানার্জী, ভলেনটিয়ার মারিয়া এলভিরা বি দোকা, সাবেক ইউপি সদস্য সোহেলী পারভীন ঝর্ণা, মহিলা বিষয়ক অধিদপ্তরের প্রশিক্ষক শাহানা আক্তার, রুহুল কুদ্দুস প্রমুখ। আলোচনা শেষে নারী দিবসের উপর পট গান অনুষ্ঠিত হয়।
এনজিও নকশীকাঁথা, রিলিফ ইন্টারন্যাশনাল, ডিআরআরএ, এনজিএফ, গণচেতনা ফাউন্ডেশন ও সুশীলন এসব কর্মসূচি পালনে সহযোগিতা করে।
দেবহাটা: ‘নারীর তথ্য পাওয়ার অধিকার, ডিজিটাল বাংলাদেশ গড়ার অঙ্গীকার’-এই প্রতিপাদ্যকে সামনে রেখে দেবহাটায় যথাযোগ্য মর্যাদায় আন্তর্জাতিক নারী দিবস উদযাপিত হয়েছে। দিবসটি উপলক্ষে উপজেলা প্রশাসনের পক্ষ থেকে বিভিন্ন কর্মসূচি গ্রহণ করা হয়।
এ উপলক্ষে ৮ মার্চ সকাল ১০টায় উপজেলা শহীদ মিনার চত্বর থেকে একটি বর্ণাঢ্য র্যালী বের হয়। র্যালীটি দেবহাটার প্রধান প্রধান সড়ক প্রদক্ষিণ করে শহীদ মিনার চত্বরে গিয়ে শেষ হয়। সেখানে অনুষ্ঠিত আলোচনা সভায় উপজেলা ভাইস-চেয়ারম্যান আমেনা রহমানের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত আলোচনা সভায় প্রধান অতিথি ছিলেন উপজেলা চেয়ারম্যান এ্যাড. স ম গোলাম মোস্তফা।
বক্তব্য রাখেন উপজেলা মহিলা বিষয়ক কর্মকর্তা নাজমুন্নাহার, সুশীলন কর্মকর্তা প্রতিমা বসাক, দেবহাটা প্রেস ক্লাবের আহবায়ক আঃ ওহাব, আইডিয়ালের পরিচালক ডা. নজরুল ইসলাম।
আইডিয়াল
‘নারীর তথ্য পাওয়ার অধিকার ডিজিটাল বাংলাদেশ গড়ার অঙ্গীকার’ এই প্রতিপাদ্যকে সামনে রেখে আন্তর্জাতিক নারী দিবস ২০১৩ উপলক্ষে দেবহাটায় আইডিয়ালের উদ্যোগে এবং মানুষের জন্য ফাউন্ডেশনের সহযোগিতায় র্যালী ও আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত হয়।
র্যালীতে ফেডারেশনের সদস্যবৃন্দ এবং সুশীল সমাজের প্রতিনিধিরা অংশগ্রহণ করেন্। র্যালীটি পারুলিয়া ইউনিয়ন পরিষদ থেকে বের হয়ে পারুলিয়া বাজার প্রদক্ষিণ করে আইডিয়াল’র প্রধান কার্যালয়ে গিয়ে শেষ হয়।
র্যালী শেষে আইডিয়ালের সমন্বয়কারী (নির্বাহী প্রধান) ডা. নজরুল ইসলামের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত আলোচনা সভায় প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন দেবহাটা উপজেলা চেয়ারম্যান এ্যাডভোকেট স ম গোলাম মোস্তফা। বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন উপজেলা মহিলা বিষয়ক কর্মকর্তা নাজমুন নাহার। বক্তব্য রাখেন শ্রমজীবী নারী উন্নয়ন কমিটির সদস্য সরদার আমজাদ হোসেন, পারুলিয়া ইউনিয়ন পরিষদের ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান প্রিয়াংকা রানী, সুশীল সমাজের প্রতিনিধি আঃ হান্নান, বিআরডিবির চেয়ারম্যান আবুল কাশেম, ফেডারেশন নেত্রী জোৎস্না বেগম, রাশিদা খাতুন, আইডিয়ালের প্রকল্প ব্যবস্থাপক শেখ আহসানুল ইসলাম, প্রকল্প কর্মকর্তা (ঋণ) শাহাদাত হোসেন, প্রকল্প কর্মকর্তা (প্রশিক্ষণ) শহীদুল্লাহ সরদার প্রমুখ।
উল্লেখ্য, আইডিয়ালের উদ্যোগে আশাশুনি ও কালিগঞ্জ উপজেলায় একইভাবে আন্তর্জাতিক নারী দিবস উদযাপিত হয়।
কেশবপুর: কেশবপুর উপজেলা মহিলা বিষয়ক অধিদপ্তর ও দলিতের উদ্যোগে শুক্রবার আন্তর্জাতিক নারী দিবস পালন উপলক্ষে র্যালী, আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত হয়েছে। র্যালীটি শহরের প্রধান প্রধান সড়ক প্রদক্ষিণ শেষে উপজেলা পরিষদের সভাকক্ষে নির্বাহী অফিসার আবু সায়েদ মনজুর আলমের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত আলোচনা সভায় প্রধান অতিথি ছিলেন উপজেলা পরিষদের ভাইস চেয়ারম্যান মিজানুর রহমান খান মির্জা। বিশেষ অতিথি ছিলেন ভাইস চেয়ারম্যান ফিরোজা আক্তার নাহিদ। শুভেচ্ছা বক্তব্য রাখেন মহিলা বিষয়ক কর্মকর্তা মৌসুমী আক্তার। বক্তব্য রাখেন দলিতের সিডিও তাপস মণ্ডল, দিলিপ সরদার, শিক্ষিকা শিউলি পাল, মনিরা খানম, কুলসুম বেগম, নাজমিন নাহার প্রমুখ। আলোচনা সভা শেষে সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠানের আয়োজন রা হয়।
খুলনা: ‘নারীর তথ্য পাওয়ার অধিকার-ডিজিটাল বাংলাদেশ গড়ার অঙ্গীকার’ শ্লে¬াগান নিয়ে খুলনায় শুক্রবার আন্তর্জাতিক নারী দিবস পালিত হয়েছে। এ উপলক্ষে জেলা প্রশাসন এবং নারী দিবস উদযাপন পর্ষদ নগরীতে ৭ মার্চ হতে চার দিনব্যাপী নানা অনুষ্ঠানের আয়োজন করে।
সকালে শহীদ হাদিস পার্ক হতে বর্ণাঢ্য র্যালীর উদ্বোধন করেন খুলনা সিটি কর্পোরেশনের মেয়র তালুকদার আব্দুল খালেক। উদ্বোধনকালে তিনি বলেন, নারীকে সমঅধিকার প্রতিষ্ঠার এই লড়াইয়ে নিজেকেই সকল ক্ষেত্রে তাঁর অংশগ্রহণ নিশ্চিত করতে হবে। আর এই শক্তি অর্জনের প্রধান উপায় শিক্ষা ও সম্পদ অর্জন। র্যালীটি নগরীর প্রধান প্রধান সড়ক প্রদক্ষিণ করে পিকচার প্যালেস মোড়ে মানববন্ধনে রূপ নেয়। পরে খুলনা জেলা প্রশাসকের সম্মেলনকক্ষে আলোচনা সভার আয়োজন করা হয়। আলোচনা সভায় প্রধান অতিথি ছিলেন খুলনা জেলা প্রশাসক মেজবাহ উদ্দিন। বিশেষ অতিথি ছিলেন নাগরিক ফোরাম খুলনা’র চেয়ারপার্সন শেখ আব্দুল কাইয়ুম, সরকারি মহিলা কলেজের অধ্যক্ষ প্রফেসর সৈয়দা লুৎফুন নাহার। স্বাগত জানান এ্যাডভোকেট অলোকা নন্দা দাস। অনুষ্ঠানে সভাপতিত্ব করেন অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক (সার্বিক) ড. আব্দুল হাকিম।
আলোচনা সভায় বক্তারা বলেন, দেশের অর্ধেক জনসংখ্যা হলো নারী। আর এই বিপুল জনগোষ্ঠীকে পিছনে রেখে দেশের উন্নয়ন সম্ভব নয়। নারীর ভাগ্য উন্নয়ন হলে দেশেরও উন্নয়ন ত্বরান্বিত হবে। বক্তারা আরও বলেন, প্রতিটি পরিবার থেকেই নারী অধিকার চর্চা করতে হবে। বছরের প্রতিটি দিনই নারী দিবস। কেননা সকালে ঘুম ভাঙা থেকে শুরু করে রাতে বিছানায় যাওয়া পর্যন্ত মা, বোন, স্ত্রীর ভূমিকা অনস্বীকার্য।
উল্লে¬খ্য, ১৯১১ সালের ৮ মার্চ হতে এই দিনটি আন্তর্জাতিক নারী দিবস হিসেবে স্থান পায়। ১৮৫৭ সালের এ দিনে যুক্তরাষ্ট্রের নিউইয়র্কে একটি পোশাক কারখানার নারী শ্রমিকরা দৈনিক ১২ ঘণ্টা থেকে শ্রমঘণ্টা কমিয়ে ৮ ঘণ্টা নির্ধারণ, ন্যায্য মজুরী ও কর্মক্ষেত্রে স্বাস্থ্যকর পরিবেশ নিশ্চিত করার দাবিতে আন্দোলন শুরু করেন। এই আন্দোলের মাধ্যমে তাঁরা দাবি আদায়েও সক্ষম হন। আমাদের দেশে ১৯৭৩ সাল থেকে দিবসটি পালন করা হয়।
আরা
‘নারীর তথ্য পাওয়ার অধিকার, ডিজিটাল বাংলাদেশ গড়ার অঙ্গীকার’ শ্লোগানকে সামনে রেখে শুক্রবার সকাল ৯টায় কলারোয়া উপজেলা প্রশাসন ও আরা সংস্থার আয়োজনে আন্তর্জাতিক নারী দিবস উপলক্ষে র্যালী ও আলোচনা সভার আয়োজন করা হয়।
র্যালী ও আলোচনা সভায় প্রধান অতিথি ছিলেন কলারোয়া উপজেলা নির্বাহী অফিসার হুসাইন শওকাত। বিশেষ অতিথি ছিলেন ভাইস চেয়ারম্যান মিসেস মনোয়ারা ফারুক, উপজেলা মহিলা বিষয়ক কর্মকর্তা নাছরিন জাহান, উপ-সহকারি জনস্বাস্থ্য প্রকৌশলী কুদরাতই-খোদা, আরা সংস্থার নির্বাহী পরিচালক শেখ আবুল কালাম আজদ, সুশীলনের আজমিরা খাতুন। বক্তব্য রাখেন নাছরিন জাহান, শেখ আবুল কালাম আজাদ, মোস্তাফিজুর রহমান, সুফিয়া খাতুন সহ আরো অনেকে অনুষ্ঠানটি পরিচালনা করেন আরা সংস্থার প্রোগ্রাম অফিসার আরিফ হোসেন ।
দেবহাটা মানবাধিকার কমিশন
শুক্রবার সকাল ৯টায় পারুলিয়ায় বাংলাদেশ মানবাধিকার কমিশন দেবহাটা উপজেলা শাখার আয়োজনে আন্তর্জাতিক নারী দিবস উপলক্ষে এক আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত হয়। কমিশনের সভাপতি অধ্যক্ষ জামসেদ আলমের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত আলোচনা সভায় বক্তব্য রাখেন মোজাহিদ হোসেন, বিভুতি ভূষন, পঞ্চানন ঘোষ, গোলাম হোসেন, রশীদুল আলম প্রমুখ। অনুষ্ঠান পরিচালন করেন সাধারণ সম্পাদক সাংবাদিক রিয়াজুল ইসলাম।



error: Content is protected !!