সাতক্ষীরা’র ঐতিহ্যবাহী বিদ্যাপিঠ সাতক্ষীরা সরকারি কলেজে নবীণ বরণ ও সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান


প্রকাশিত : ফেব্রুয়ারি ২৮, ২০১৭ ||

নিজস্ব প্রতিনিধি: সাতক্ষীরা’র ঐতিহ্যবাহী বিদ্যাপিঠ সাতক্ষীরা সরকারি কলেজে শিক্ষাবর্ষের ১ম বর্ষ (সম্মান) ও একাদশ শ্রেণিতে ভর্তি শিক্ষার্থীদের নবীণবরণ ও সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান অনুষ্ঠিত হয়েছে।
প্রতিদিনের মতো স্বাভাবিক নিয়মে সূর্যোদয় হলেও রোববার সকালের সুর্যোদয় ছিল সাতক্ষীরা সরকারি কলেজে নবীণ শিক্ষার্থীদের এক উজ্জ্বল ইতিহাস। মঙ্গলবার সকাল ১০টায় যখন আস্তে আস্তে পৃথিবীতে আলো ছড়াচ্ছিল সূর্য, সাথে সাথে সাতক্ষীরা সরকারি কলেজের ক্যাম্পাসও মুখরিত হচ্ছিল নবীণদের পদচারণায়। মঙ্গলবার সকাল ১০টায় কলেজ চত্বরে ব্যাপক উৎসাহ উদ্দীপনার মধ্যদিয়ে এ নবীণ বরণ অনুষ্ঠানে কলেজের অধ্যক্ষ প্রফেসর লিয়াকত পারভেজের সভাপতিত্বে প্রধান অতিথি হিসেবে বক্তব্য রাখেন সদর উপজেলা চেয়ারম্যান মো. আসাদুজ্জামান বাবু। এসময় তিনি বলেন, ‘একটি দেশের সার্বিক উন্নতি নির্ভর করে সুশিক্ষিত জনগোষ্ঠির ওপর। এর মূল ভিত্তি হল মানসম্মত যুগোপোযোগী শিক্ষা ব্যবস্থা। এ ক্ষেত্রে আধুনিক শিক্ষায় শিক্ষিত শিক্ষার্থীরাই ভবিষ্যত জাতীর মেরদন্ড। সাতক্ষীরা সরকারি কলেজ এ জেলার শ্রেষ্ঠ বিদ্যাপিঠ। এ বিদ্যাপিঠের শিক্ষার্থীরা সুশিক্ষা  অর্জন করে ব্যক্তি, দেশ ও জাতির কল্যাণে কাজ করছে। বর্তমান প্রতিযোগিতার বিশ্বে বাংলাদেশকে একটি মর্যাদাশীল জাতি হিসেবে গড়ে তুলতে জ্ঞান, বিজ্ঞান এবং তথ্য প্রযুক্তিসহ সকল ক্ষেত্রে শিক্ষার্থীদের দক্ষতা অর্জন করতে হবে।’
বিশেষ অতিথি হিসেবে বক্তব্য রাখেন সাতক্ষীরা সরকারি মহিলা কলেজের অধ্যক্ষ প্রফেসর আব্দুল খালেক, কলেজের উপাধ্যক্ষ প্রফেসর দীনবন্ধু দেবনাথ, শিক্ষক পর্ষদ সম্পাদক ও রাষ্ট্রবিজ্ঞান বিভাগের অধ্যাপক আবুল কালাম আজাদ, নবীণবরণ উদ্যাপন কমিটির আহবায়ক মহাদেব চন্দ্র সিংহ প্রমুখ। এ সময় উপস্থিত ছিলেন সাতক্ষীরা সরকারি কলেজের সাবেক অধ্যক্ষ সুকুমার দাস, সরকারি মহিলা কলেজের সাবেক অধ্যক্ষ প্রফেসর আব্দুল হামিদ, দৈনিক আজকের সাতক্ষীরা পত্রিকার ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক হাফিজুর রহমান মাসুম, সহকারি অধ্যাপক মো. জিয়াউর রহমান, নীগার সুলতানা, প্রভাষক আবুল কালাম আজাদ, অরুনাংশু কুমার বিশ্বাস, মফিজুল ইসলাম, সহকারি অধ্যাপক কাজী আসাদুল ইসলাম, সহযোগি অধ্যাপক আমানুল্লাহ আল হাদীসহ কলেজের শিক্ষক ও শিক্ষার্থীরা উপস্থিত ছিলেন। আলোচনা সভা শেষে নবীণ শিক্ষার্থীদের মনোজ্ঞ সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান পরিবেশন করে। সমগ্র অনুষ্ঠান পরিচালনা করেন সহকারি অধ্যাপক গাউছার রেজা।