কলারোয়ায় এক প্রধান শিক্ষককের সংবাদ সম্মেলন


প্রকাশিত : এপ্রিল ১৮, ২০১৭ ||

কলারোয়া প্রতিনিধি: কলারোয়ার সীমান্তবর্তী চন্দনপুর মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষককে অকথ্য ভাষায় গালিগালাজ ও জীবননাশের হুমকির প্রতিবাদে সংবাদ সম্মেলনের আয়োজন করা হয়েছে। সোমবার দুপুরে কলারোয়া প্রেসক্লাবে অনুষ্ঠিত সংবাদ সম্মেলনে স্কুলের প্রধান শিক্ষক আনছার আলী লিখিত বক্তব্যে বলেন, চন্দনপুর মাধ্যমিক বিদ্যালয়ে শিক্ষার মান উন্নয়নে স্কুল পরিচালনা পরিষদের নির্দেশক্রমে নিয়ম করা হয় কোনো ছাত্র-ছাত্রী জাতীয় সঙ্গীতে উপস্থিত না থাকলে তাদের ক্লাসে প্রবেশ করার আগে প্রধান শিক্ষকের অনুমতি নিতে হবে। সে জন্য আমি প্রধান শিক্ষক প্রত্যেকদিন জাতীয় সঙ্গীত শেষ হওয়ার সাথে সাথে স্কুলের প্রধান গেটে তালা লাগিয়ে দেয়ার ব্যবস্থা করি। এরপর কোন ছাত্র-ছাত্রী স্কুলে আসলে গেটের তালা খুলে আমার অনুমতি নিয়ে ক্লাসে প্রবেশ করতে দেওয়া হয়। তবে গেটের তালা খুলে দেওয়ার দায়িত্ব দেওয়া হয় প্রবীন স্টাফ দপ্তরী বজলুর রহমানকে। গত ১৫ এপ্রিল শনিবার জাতীয় সঙ্গীত শেষ হওয়ার ৪৫ মিনিট পরে ১০ম শ্রেণির ছাত্র আশিকুজ্জামান গেটে ধাক্কা দিতে থাকে স্কুলে আসার জন্য। দপ্তরী বজলুর রহমান গেটের তালা খুলতে গেলে ওই ছাত্র আশিক তাকে বলে তোর বাবার স্কুলের গেট তালা দিয়েছিস বলে গালি দিতে থাকে। দপ্তরী তাকে ডেকে নিয়ে শিক্ষক মিলনায়তনে আসে এবং তাকে গালি দেওয়ার বিষয়টি আমাকেসহ সকল শিক্ষককে জানান। এ সময় আমি ছাত্র আশিককে এ ধরণের আচরণ সম্পর্কে জানতে চাইলে আমার উপরও চড়াও হয় এবং গালি দেয়। এরপর আমি তাকে ধরে পেছনে চারটি বাড়ি দিয়ে ক্লাসে পাঠিয়ে দিই। পরবর্তীতে স্কুল চলাকালীন সময়ে কাউকে না বলে পাচিল টপকিয়ে বাড়ি চলে যায় এবং বাড়ি থেকে তার খালা সাজেদাকে ডেকে নিয়ে আমার অফিসরুমে প্রবেশ করে আমাকে অকথ্যভাষায় গালিগালাজ শুরু করে এবং আমাকে জীবন নাশের হুমকি দেয়। এ ঘটনা ধামাচাপা দেওয়ার জন্য আমার বিরুদ্ধে বিভিন্ন অপবাদ দিয়ে এবং সাংবাদিকদের নিকট ভুল তথ্য দিয়ে সংবাদ প্রকাশ করিয়েছে। আমি সংবাদ সম্মেলনের মাধ্যমে উক্ত প্রকাশিত সংবাদের তীব্র নিন্দা ও প্রতিবাদ জানাচ্ছি এবং সেই সাথে প্রকৃত ঘটনা তদন্তপূর্বক উৎঘাটনের জন্য সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষের সুদৃষ্টি কামনা করছি। এ সময় উপস্থিত ছিলেন স্কুলের সভাপতি আলিমুর রহমান, সিনিয়র শিক্ষক আব্দুর রহমান, অভিভাবক সদস্য আনারুল ইসলাম, শহর আলী ও স্কুলের দপ্তরী বজলুর রহমান।