চৌবাড়িয়ায় গরু ব্যবসায়ীকে পিটিয়ে হত্যার অভিযোগ: ময়না তদন্ত ছাড়াই লাশ দাফন


প্রকাশিত : এপ্রিল ২০, ২০১৭ ||

কুলিয়া (দেবহাটা) প্রতিনিধি: সদর উপজেলার ভোমরা ইউনিয়নের চৌবাড়িয়া গ্রামে সাইদুল মোল্যা নামের এক গরু ব্যবসায়ীকে পিটিয়ে হত্যার অভিযোগ উঠেছে। ময়না তদন্ত ছাড়াই লাশ দাফন করা হয়েছে। এলাকাবাসি জানায়, চৌবাড়িয়া গ্রামের মৃত বাবর আলী মোল্যার পুত্র সাইদুল মোল্যা (৫০) ও  একই গ্রামের কিনু সরদারের পুত্র কওছার সরদার (৫০) দীর্ঘদিন যাবত একসাথে গরুর ব্যবসা করে আসছিল। কিন্তু গত ১৬ এপ্রিল সকাল ৭টায় দেনা পাওনাকে কেন্দ্র উভয়ের মধ্যে বাগবিতন্ডা হয়। যার প্রেক্ষিতে কওছার সরদার ও তার পুত্র শাহিনুর (২৮), আমিনুর (২৬), মনিরুল (২৪), মিজানুর (২২) নিহত সাইদুল মোল্যার বাড়ির পাশের বাঁশ বাগানে ডেকে এলোপাতাড়ি মারধর করলে সাইদুল মোল্যা গুরুতর আহত হয়। তখন তার পরিবারের লোকজন তাকে সাতক্ষীরা সদর হাসপাতালে নিয়ে গেলে অবস্থার অবনতি হওয়ার কারণে মঙ্গলবার ভোরে হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ তাকে খুলনা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে স্থানান্তর করে। সেখানে চিকিৎসাধীন অবস্থায় মঙ্গলবার দুপুর আনুমানিক ২.৩০ মিনিটে সাইদুল মোল্যা মারা যায়। এ বিষয়ে নিহত সাইদুল মোল্যার বড় ভাই ইবাদুল ইসলাম মোল্যা জানান কওছার ও তার ছেলেদের বেধড়ক মারধরের কারণে আমার ভাই মারা গেছে। এ ব্যাপারে অভিযুক্ত কওছার সরদারের সাথে যোগাযোগ করা হলে তাকে তার বাড়িতে পাওয়া যায়নি। তার পরিবারের দাবি নিহত সহিদুল মোল্যাকে তারা কোন ভাবেই আঘাত করেনি। তার মৃত্যু হয়েছে হার্ট এ্যাটাকে। এ ব্যাপারে সাতক্ষীরা সদর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা ফিরোজ হোসেন মোল্যা বলেন, হাসপাতালের রিপোর্টে স্বাভাবিক মৃত্যুর কথা উল্লেখ থাকায় মামলা হয়নি। তবে নিহতের বড় ভাই ইবাদুল ইসলাম মোল্যা জানান, তিনি বাদী হয়ে সাতক্ষীরা সদর থানায় একটি অভিযোগ করেছেন।