চুকনগর হাইওয়ে পুলিশ ফাড়ি ইনচার্জের অপসারণ দাবিতে সড়ক অবরোধ ও বিক্ষোভ সমাবেশ


প্রকাশিত : এপ্রিল ২১, ২০১৭ ||

গাজী আব্দুল কুদ্দুস, চুকনগর (খুলনা): চুকনগর হাইওয়ে পুলিশ ফাঁড়ি ইনচার্জের অপসারণ দাবিতে সড়ক অবরোধ ও বিক্ষোভ সমাবেশ করেছেন এলাকাবাসি। মহাসড়কে অবৈধ থ্রি হুইলার চলাচলকে কেন্দ্র করে এলাকাবাসির সাথে বেশ কিছুদিন যাবৎ দ্বন্দ্ব চলে আসছিল চুকনগর হাইওয়ে পুলিশ ফাঁড়ির ইনচার্জ এসআই সাফুর আহম্মেদের। এ অবস্থায় গত কয়েকদিন আগে একটি ইঞ্জিনচালিত ভ্যান আটক করেন তিনি। উক্ত ভ্যানটিকে ছেড়ে দেয়ার সুপারিশ করেন মাগুরাঘোনা ইউনিয়ন আ’লীগের সাধারণ সম্পাদক এবং মাগুরাঘোনা ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান শেখ আবুল হোসেন। কিন্তু এসআই সাফুর তাকে ঘোরাতে থাকেন এক পর্যায়ে বৃহস্পতিবার সকালে চেয়ারম্যান শেখ আবুল হোসেন পুনরায় ভ্যানটি ছেড়ে দেয়ার জন্যে আইসি কে ফোন করলে তিনি চেয়ারম্যানের সাথে অসৌজন্যমুলক আচরণ করেন। উক্ত বিষয়টি নিয়ে এলাকাবাসির মধ্যে ক্ষোভের সঞ্চার হয়। এরই জের ধরে বৃহস্পতিবার বেলা ১২টার দিকে খুলনা-সাতক্ষীরা ও যশোর-সাতক্ষীরা ভায়া চুকনগর মহাসড়কে যানবাহন চলাচল বন্ধ করে ফাড়ি ইনচার্জ সাফুর আহম্মেদের অপসারণ দাবিতে বিক্ষোভ সমাবেশ অনুষ্ঠিত হয়। এখানে বক্তব্য রাখেন মাগুরাঘোনা ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান শেখ আবুল হোসেন, আটলিয়া ইউনিয়ন পরিষদের নব নির্বাচিত চেয়ারম্যান এ্যাডভোকেট প্রতাপ রায়,আ,লীগ নেতা শেখ আব্দুস সামাদ, মোসলেম উদ্দিন মোড়ল, শেখ হাবিবুর রহমান, যুবলীগ নেতা প্রভাষক গোবিন্দ ঘোষ, আব্দুর রহমান, রতন ঘোষ, মাহাবুর রহমান প্রমুখ। এক পর্যায়ে ডুমুরিয়া থানার ওসি সুভাষ বিশ্বাস ঘটনাস্থলে এসে বিক্ষুব্ধ জনতাকে অভিযুক্ত পুলিশ কর্মকর্তার বিরুদ্ধে ব্যবস্থা গ্রহনের আশ্বাস দিলে বেলা ১টার দিকে অবরোধ তুলে নেয় জনতা। এর পর বেলা ১.৩০ টায় চুকনগর যৌথ দূর্ঘটনা প্রতিরোধ কমিটির কার্যালয়ে স্থানীয় নেতৃবৃন্দের সাথে এক রুদ্ধদ্বার বৈঠকে বসেন পুলিশ কর্মকর্তারা। এ সময় উপস্থিত ছিলেন ডুমুরিয়া থানার ওসি সুভাষ বিশ্বাস, কাটাখালী হাইওয়ে থানার ওসি কে এম আজিজুল ইসলাম, মাগুরাঘোনা পুলিশ ফাড়ি ইনচার্জ এসআই রুহুল আজম, মাগুরাঘোনা ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান শেখ আবুল হোসেন, আটলিয়া ইউনিয়ন পরিষদের নব নির্বাচিত চেয়ারম্যান এডভোকেট প্রতাপ রায়, আ’লীগ নেতা শেখ আব্দুস সামাদ, চুকনগর প্রেসক্লাবের সাধারণ সম্পাদক গৌতম রাহা, সহ সভাপতি শংকর ঘোষ, আ’লীগ নেতা শেখ হাবিবুর রহমান, যুবলীগ নেতা প্রভাষক গোবিন্দ ঘোষ, রোকনুজ্জামান মন্টু, শ্রমিক নেতা সরদার মাসুদ রানা প্রমুখ। বৈঠকের সিদ্ধান্ত মোতাবেক তাৎক্ষণিক এসআই সাফুর আহম্মেদকে ছুটি দেয়া হয় এবং তদন্ত সাপেক্ষে আগামী রোববার তার বিরুদ্ধে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহন করা হবে বলে জানা গেছে।