কলারোয়ায় ছোট ভাইয়ের লাঠির আঘাতে বড় ভাই নিহত


প্রকাশিত : মে ৮, ২০১৭ ||

কলারোয়া প্রতিনিধি: কলারোয়ায় বাঁশের কঞ্চি নেওয়ার মতো তুচ্ছ ঘটনাকে কেন্দ্র করে ছোট ভাইয়ের লাঠির আঘাতে বড় ভাই নিহত হয়েছেন। ঘটনাটি ঘটেছে, রোববার সকাল সাড়ে ৯টার দিকে কলারোয়া উপজেলার তরুলিয়া গ্রামে। ঘটনার বিবরণে জানা গেছে, উপজেলার তরুলিয়া গ্রামের বারিক গাজীর ছেলে সোহাগ গাজী (২৮) পারিবারিক বাঁশ ঝাড় থেকে কয়েকটি কঞ্চি কাটছিলো। এ সময় তার ভাই রসুল গাজী বাধা দেয়। এক পর্যায়ে রসুল গাজী (২৬) ও তার স্ত্রী রিক্তা বেগম (২২) বাঁশের লাঠি দিয়ে পিছন দিক থেকে সোহাগ গাজীকে আঘাত করে। এতে সোহাগ গাজী মাটিতে লুটিয়ে পড়ে। পরে মারাক্তক জখম প্রাপ্ত সোহাগ গাজীকে উদ্ধার করে যশোরের কেশবপুর সরকারি হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। পরে সোমবার সকালের দিকে সেখান থেকে উন্নত চিকিৎসার জন্য ঢাকায় নেওয়ার পথে দুপুরে দৌলতদিয়া ফেরিঘাট এলাকায় পৌঁছালে তিনি মৃত্যুর কোলে ঢলে পড়েন। এ ঘটনায় কলারোয়া থানায় নিহতের স্ত্রী সুরাইয়া ইয়াসমিন আশা বাদী হয়ে দু’জনকে আসামি করে একটি লিখিত অভিযোগ দায়ের করেছেন। নিহতের ময়না তদন্ত শেষে দুপুরের পর পরিবারের কাছে মরদেহ হস্তান্তর করা হয়েছে বলে জানান সরসকাটি পুলিশ ফাঁড়ির ইনচার্জ এসআই এফ এম তারেক। এদিকে, মৃত্যুর সংবাদ শুনে তাৎক্ষণিকভাবে ঘটনাস্থলে ছুটে যান থানার অফিসার ইনচার্জ বিপ্লব কুমার দেবনাথ। তিনি বলেন, যত দ্রুত সম্ভব হত্যাকারীদের ধরতে পুলিশ সব ধরণের চেষ্টা অব্যাহত রাখবে। মামলাটি তদন্ত কর্মকর্তা হিসাবে এসআই এমদাদুল হককে দায়িত্ব দেয়া হয়েছে বলে জানা গেছে।