ছন্দে ফিরলেন কাটার মাস্টার


প্রকাশিত : মে ২০, ২০১৭ ||

খেলার খবর: বছর দুয়েক আগে ওয়ানডে অভিষেকে হৈচৈ ফেলে দেওয়ার পর থেকেই ক্রিকেট বিশ্বের আলোচনায় মোস্তাফিজুর রহমান। অভিষেকে আলো ছড়িয়েই থেমে যান নি, বরং তার সৌজন্যে সমৃদ্ধ হয়েছে বাংলাদেশের ক্রিকেট, সাফল্যের রঙে রঙিন হয়েছে নিয়মিত। কিন্তু গত বছর ইংল্যান্ডে সাসেক্সের হয়ে খেলতে গিয়ে কাঁধের ইনজুরিতে পড়ার পর কেন যেন সেই পুরনো মোস্তাফিজকে খুঁজে পাওয়া যাচ্ছিল না। টাইগারদের জন্য সুখবর, আয়ারল্যান্ডে ত্রিদেশীয় সিরিজে চেনা ছন্দে দেখা যাচ্ছে ‘কাটার মাস্টার’কে।

২০১৬ সালের ১১ আগস্ট লন্ডনের বুপা ক্রমওয়েল হাসপাতালে কাঁধে অস্ত্রোপচার হয়েছিল মুস্তাফিজের। পুনর্বাসন প্রক্রিয়া শেষে গত জানুয়ারিতে নিউজিল্যান্ড সফরে দলে  ফেরেন তিনি। কিন্তু পুরোনো চেহারায় যেন খুঁজে পাওয়া যাচ্ছিল না। অবশেষে ত্রিদেশীয় সিরিজে দেখা যাচ্ছে আগের মোস্তাফিজকে। আয়ারল্যান্ডের বিপক্ষে উদ্বোধনী ম্যাচে বৃষ্টির কারণে বল করার সুযোগ হয় নি। নিউজিল্যান্ডের বিপক্ষে দ্বিতীয় ম্যাচে ২ উইকেট নিয়েছিলেন ৩৩ রানে। শুক্রবার স্বাগতিক আইরিশদের বিপক্ষে ‘দ্য ফিজ’-এর বোলিং ফিগার তো অসাধারণ, ৯-২-২৩-৪!

ত্রিদেশীয় সিরিজের আগে প্রস্তুতি ম্যাচে ছন্দে ফেরার আভাস দিয়েছিলেন মোস্তাফিজ। আয়ারল্যান্ড ‘এ’ দলের বিপক্ষে ৫.২ ওভার বল করে ১৭ রান খরচায় তুলে নেন দুই উইকেট। তারই ধারাবাহিকতায় চলমান প্রতিযোগিতায় বল হাতে আগুন ঝরাচ্ছেন তিনি। শুক্রবার তার কাটার, স্লোয়ার সামলাতে রীতিমতো হিমশিম খেতে হয়েছে আইরিশ ব্যাটসম্যানদের।

নিজের প্রথম ওভারেই ‍উইকেট পেয়েছেন মোস্তাফিজ। অফ স্টাম্পের বাইরের বল খোঁচা মেরে থার্ড ম্যানে সাব্বির রহমানের তালুবন্দি হন পল স্টারলিং। প্রথম স্পেলে ২ ‍ওভার বল করে সাফল্য ওই একটিই।

দ্বিতীয় স্পেলে এক ওভার বল করে কোনও উইকেট পান নি। তবে তৃতীয় স্পেলে তিনি দারুণ সফল। তার দ্বিতীয় শিকার নিয়াল ও’ব্রায়েন। ৩০ রান করে প্রতিরোধ গড়ে তোলা নিয়ালকে তামিম ইকবালের চমৎকার ক্যাচে পরিণত করেন মোস্তাফিজ।

নিয়ালের ছোট ভাই কেভিন ও’ব্রায়েন তার তৃতীয় শিকার। কাভার বাউন্ডারি থেকে অনেকটা দৌড়ে এসে, সামনে ঝাঁপিয়ে দুর্দান্ত ক্যাচ নেওয়ার জন্য মোসাদ্দেক হোসেনেরও কৃতিত্ব প্রাপ্য অবশ্য।

চতুর্থ সাফল্যের জন্য বেশিক্ষণ অপেক্ষা করতে হয় নি মোস্তাফিজকে। নিজের পরের ওভারেই তিনি ফিরিয়ে দেন গ্যারি উইলসনকে। লেগ সাইডে খাটো লেন্থের বলে পরাস্ত হয়ে উইলসন ধরা পড়েন মুশফিকুর রহিমের গ্লাভসে। চতুর্থ স্পেলে এক ওভার বল করে উইকেটের দেখা পান নি। অবশ্য ওই ওভারে রান দিয়েছেন মাত্র একটি।

একজন পেসারের জীবনে সবচেয়ে বড় ‘শত্রু’ ইনজুরি। ইনজুরির কারণে অনেক সম্ভাবনাময় পেসারের ক্যারিয়ার বিকশিত হতে পারে নি। মোস্তাফিজকে নিয়েও তেমন আশঙ্কা দেখা দিয়েছিল কিছু দিন আগে। তবে বাংলাদেশের ক্রিকেটের জন্য সুখবর, ‘দ্য ফিজ’-এর কাটার, স্লোয়ারকে নির্বিষ করতে পারে নি ইনজুরি। আয়ারল্যান্ডে ত্রিদেশীয় সিরিজে এটাই বোধহয় টাইগারদের সবচেয়ে বড় প্রাপ্তি।