চুকনগরে তুচছ ঘটনায় ২জনকে হাতুড়ি পেটা: গ্রেপ্তার ১জন


প্রকাশিত : মে ২০, ২০১৭ ||

চুকনগর (খুলনা) প্রতিনিধি: চুকনগরে তুচছ ঘটনায় সংখ্যালঘু সম্প্রদায়ের পিতা পুত্রকে হাতুড়ি দিয়ে পিটিয়ে জখম করা হয়েছে। এঘটনায় ৯জনকে আসামী করে ডুমুরিয়া থানায় মামলা দায়ের করা হয়েছে। মামলার পরপরই পুলিশ অভিযান চালিয়ে একজন আসামীকে গ্রেপ্তার করতে সক্ষম হয়েছে। মামলার বিবরণে জানাযায়, ডুমুরিয়া উপজেলার চুকনগর গ্রামের জীবন কৃষ্ণ নন্দীর রাইচ মিল ও একই গ্রামের আবুল হোসেন শেখের বাড়ি পাশাপাশি অবস্থিত। প্রায় এক বছর আগে থেকে আবুল হোসেনের ব্যবহৃত পায়খানার ট্যাংকি ভেঙ্গে দুর্গন্ধযুক্ত ময়লা পানি প্রায় প্রতিদিনই রাইচ মিলের চাতালে আসে। সে কারণে রাইচ মিলের ব্যাপারী, কর্মচারীরা দুগর্ন্ধের কারণে তাদের কাজের ব্যাঘাত ঘটায় তারা জীবন কৃষ্ণকে বিষয়টি বলে। এঘটনায় গত ১২মে জীবন কৃষ্ণ নন্দী ও তার পুত্র নিতাই কুমার নন্দী তাদের নন্দী রাইচ মিলে গিয়ে আবুল হোসেনকে পায়খানার ময়লা দুর্গন্ধযুক্ত পানি সুষ্ঠুভাবে সরানোর জন্য অনুরোধ করলে তিনি অকথ্য ভাষায় গালি গালাজ করতে থাকে। তার বাহিনী (আবুল হোসেন বাহিনী নামে এলাকায় পরিচিত) দা, হাতুড়ী, লোহার রড, কাঠের চলা ও লাঠিসোটা নিয়ে জীবন কৃষ্ণ ও তার পুত্র নিতাই নন্দীকে পিটিয়ে গুরুতর জখম করে। এঘটনায় জীবন কৃষ্ণ বাদি হয়ে ডুমুরিয়া থানায় শেখ আবুল হোসেনের পুত্র রাশিদুল ইসলাম শেখ, কামরুল শেখ, নজরুল শেখ, হাফিজুর শেখ, শাহাজুল শেখ, শাহিন শেখ, মিনারুল শেখ, শাহাজুল শেখের পুত্র মামুন শেখ ও মৃত মালেক শেখের পুত্র আবুল হোসেন শেখ এই ৯জনকে আসামী করে একটি মামলা দায়ের করেন। যার নং-৩০। মামলার পর পরই থানার পুলিশ অভিযান চালিয়ে ১নং আসামী রাশিদুল ইসলামকে গ্রেপ্তার করেন।