ডুমুরিয়ায় কলেজ ছাত্রলীগের হামলার জেরে শাহপুর বাজারে ধর্মঘট


প্রকাশিত : জুলাই ১৭, ২০১৭ ||

ডুমুরিয়া (খুলনা) প্রতিনিধি: ডুমুরিয়া উপজেলার শাহপুর মধুগ্রাম কলেজ ছাত্রলীগের নব নির্বাচিত কমিটির আনন্দ মিছিলে অপর গ্রুফের হামলার সময় গাড়ি ভংচুর ও প্রকাশ্যে অস্ত্র নিয়ে  বাজারে ত্রাস সৃষ্টির প্রতিবাদে ধর্মঘট পালন করেছে শাহপুর বাজার বণিক সমিতি। আজ সকাল ৮টা থেকে দুপুর ১টা পর্যন্ত সকল দোকান পাট ও ব্যবসায়িক প্রতিষ্ঠান বন্ধ করে এ ধর্মঘট পালন করে। ঘটনায় প্রকাশ, শনিবার সকালে নবনির্বাচিত কমিটির সভাপতি শেখ রাব্বি হাসান (২২) ও  সেক্রেটারি জিএম সুমন (২৪) এর নেতৃত্বে একটি আনন্দ মিছিল নিয়ে শাহপুর বাজার আওয়ামী লীগ অফিসে আলোচনা সভা করে। সভা শেষে তারা পুনরায় একটি আনন্দ মিছিল নিয়ে কলেজ অভিমুখে রওয়ানা হয়। পথিমধ্যে বেলা ১২টার দিকে শাহপুর বাজার থেকে ছাত্রলীগের অপর একটি গ্রুফ “ মানিনা মানবোনা” শ্লোগান সহকারে নব নির্বাচিত কমিটির সভাপতি শেখ রাব্বি হাসান (২২ কে অতর্কিত হামলা চালায়। গুরুতর আহত অবস্থায় রাব্বিকে প্রাথমিক চিকিৎসার জন্য শাহপুর বাজারে নিয়ে আসে। খবর পেয়ে রাব্বির লোকজন জড়ো হয়ে শাহপুর বাজারে অবস্থান নেয়।
খবরটি জানতে পেরে ছাত্রলীগের অপর গ্রুফের মতিউর, আবু হাসান, সাইফুল, বিল্লাল, স্যাকলাইন, আলী গাজীর নেতৃত্বে লোহার রড, রাম দা, ও দেশীয় অস্ত্র নিয়ে শাহপুর বাজারে নব নির্বাচিত কমিটির লোকজনের উপর হামলা চালায়। এ সময় অন্তত: ১০ জন আহত হয়। তারা একটি মটর সাইকেল ও লেগুনা গাড়ি ভাঙচুর করে এবং প্রকাশ্যে লোহার রড লাঠি ও আগ্নেয়াস্ত্র নিয়ে শাহপুর বাজারে ত্রাস সৃষ্টি করে।
শাহপুর বাজার বণিক সমিতির সভাপতি গাজী নিজাম উদ্দিন বলেন; হামলার সময় মটর সাইকেল ভংচুর ও প্রকাশ্যে আগ্নেয়াস্ত্র নিয়ে  বাজারে ত্রাস সৃষ্টির প্রতিবাদে আমরা সকাল ৮টা থেকে বেলা ১টা পর্যন্ত শান্তিপূর্ণভাবে ধর্মঘট পালন  করেছি। তবে এ সময় প্রতিপক্ষরা প্রকাশ্যে বাজারে মহড়া দিয়েছে। ধর্মঘট চলাকালে আমরা হামলাকারিদের গ্রেফতার ও বিচারের দাবিতে ডুমুরিয়া থানা ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা সুকুমার বিশ্বাসের সাথে সাক্ষাৎ করেছি। তিনি সব দায়িত্ব নিয়ে ব্যবস্থা গ্রহণের আশ্বাস দিয়েছেন।
ডুমুরিয়া থানা ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা সুকুমার বিশ্বাস বলেন, শাহপুর বাজারে কোন ধর্মঘট পালন হয়নি। এ পর্যন্ত থানায় কেউ অভিযোগ দেয়নি।