ফেন্সিডিলসহ যুবলীগ নেতা আটক: অতপর মুক্তি


প্রকাশিত : July 30, 2017 ||

পত্রদূত রিপোর্ট: ফেন্সিডিল সহ আটকের পর মোটা অংকের অর্থের বিনিময়ে মুক্তি পেল যুবলীগ নেতা ও তার এক সহযোগী। ঘটনাটি ঘটেছে গত শুক্রবার রাত ৯টার দিকে দেবহাটা উপজেলার কুলিয়া এলাকায়। সে ওই উপজেলার বাজারগ্রাম এলাকার শেখ আব্দুর রহমানের ছেলে কালিগঞ্জ উপজেলা যুবলীগের মেয়াদোত্তীর্ণ কমিটির সভাপতি শেখ আনোয়ারুল কবির লিটু (৪৩) ও একই উপজেলার সাতপুর এলাকার আব্দুস সবুর। নাম প্রকাশ না করার শর্তে প্রত্যক্ষদর্শীরা জানায়, গত শুক্রবার রাত ৯টার দিকে কালিগঞ্জ উপজেলা যুবলীগের মেয়াদোত্তীর্ণ কমিটির সভাপতি শেখ আনোয়ারুল কবির লিটু ও তার সহযোগী আব্দুস সবুর দেবহাটার কুলিয়া এলাকায় ফেন্সিডিল খেতে যায়। এসময় দেবহাটা থানার এসআই মাজরিয়া তাদেরকে দুই বোতল ফেন্সিডিলসহ হাতেনাতে আটক করে। আটকের পর সে নিজেকে কালিগঞ্জ উপজেলা যুবলীগের সভাপতি শেখ আনোয়ারুল কবির লিটু বলে নিজেকে পরিচয় দেয়। উপজেলা যুবলীগের সভাপতি হওয়ায় এসআই মাজরিয়া তাদের থানায় না নিয়ে ২৪ হাজার টাকার বিনিময়ে পথিমধ্যেই মুক্তি দেয়। এঘটনায় কালিগঞ্জ উপজেলা যুবলীগের নেতাকর্মীদের মধ্যে চাঞ্চল্যকর সৃষ্টি হয়েছে। নাম প্রকাশ না করার শর্তে এক যুবলীগ নেতা জানায়, লিটু একজন মাদকাসক্ত। কিন্তু তারপরও সে যুবলীগের মত সংগঠনে কিভাবে সভাপতির দায়িত্ব পায় তা বোধগম্য নয়। তাছাড়া এ কমিটির মেয়াদ অনেক আগেই শেষ হয়ে গেছে। এব্যাপারে তিনি জেলা যুবলীগের আহবায়কসহ আ’লীগ নেতৃবৃন্দের দৃষ্টি আকর্ষণ করেছেন। তবে এব্যাপারে দেবহাটা থানার এসআই মাজরিয়া জানান, আমি কোন যুবলীগ নেতাকে আটক করিনি, টাকাও নেয়নি।