থপথে অবস্থিত হেলথ এন্ড হোপ হাসপাতালে হিমোফেলিয়া কল্যাণ সমিতির সভাপতি চেক হস্তান্তর করেন।


প্রকাশিত : August 24, 2017 ||
আজ ২৪ আগস্ট বৃহস্পতিবার বিকেল ৪ টায় পান্থপথে অবস্থিত হেলথ এন্ড হোপ হাসপাতালে হিমোফেলিয়া কল্যাণ সমিতির স¬¬¬ভাপতি ইঞ্জিনিয়ার আবদুল মজিদ ফকির হিমোফেলিয়া রোগিদের চিকিৎসা তহবিলে প্রতি মাসে ৩০০০০/- (ত্রিশ হাজার) টাকা প্রদানের প্রথম চেক হস্তান্তর করেন।
যারা উপস্থিত থেকে অনুদান গ্রহণ করেছেন: মো. তোফাজ্জল হোসেন, চেয়ারম্যান ট্রাষ্টি বোর্ড এবং ট্রাষ্টি বোর্ডের সম্মানিত সদস্যবৃন্দ, ডা. লেলিন চৌধুরী, মিঃ নির্মল রোজারিও, মিসেস সুতপা পাল এ্যাড. আবেদা গুলরুখ এবং আখতারুজ্জামান আজাদ।
অন্যান্যের মধ্যে উপস্থিত আছেন জাকিয়া শিশির, নাজমুল আলম, মেরিলিনা সরকার, মাহমুদা খাতুন, সাংবাদিক পলি খান প্রমুখ। উপস্থিত সকলে হিমোফেলিয়া রোগিদের কল্যাণে নিন্মোক্ত দাবি সমূহ বাস্তবায়নের জন্য জোর দাবি জানান।
 প্রত্যেক হিমোফেলিয়া রোগিকে বিশেষ সুবিধা প্রাপ্তির জন্য সরকারি পরিচয়পত্র প্রদান করুন।
 হিমোফেলিয়া রোগিদের জীবন  বাঁচাতে ‘জীবন রক্ষাকারী উপাদান রক্ত, ফ্রেস ফ্রোজেন প্লাজমা এবং ফ্যাক্টর  ৮ ও ৯ ইনজেকশন’ বিনামূল্যে  সরবরাহ এবং প্রতিটি রোগির জন্য স্বাস্থ্য বিমার ব্যবস্থা করুন।
 জরুরী ভিত্তিতে ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ১০ শয্যা বিশিষ্ট একটি হিমোফেলিয়া ওয়ার্ড ও একটি হিমোফেলিয়া ফিজিওথেরাপি সেন্টার স্থাপন এবং পর্যায়ক্রমে সকল সরকারি মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ১টি  করে হিমোফেলিয়া ইউনিট স্থাপন করুন।
 অসচ্ছল প্রতিটি হিমোফেলিয়া রোগিকে (প্রতিবন্ধি তালিকায় অন্তর্ভুক্ত করে) বাজার দরের সাথে সঙ্গতি রেখে ভাতা প্রদান করুন (অধিকাংশ হিমোফেলিয়া রোগি শারীরিক এবং মানসিকভাবে প্রতিবন্ধি তাই তারা কোন চাকুরী বা কর্ম করতে পারে না। সে কারণে তারা চিকিৎসা এবং অন্নসংস্থান দুটো ক্ষেত্রেই কারো দয়া বা নিয়তির উপর নির্ভরশীল হয়ে পরে।)
 হিমোফেলিয়া রোগি এবং তাদের সন্তানের জন্য সরকারি স্কুল, কলেজ, বিশ্ববিদ্যালয়ে বিশেষ বিবেচনায় ভর্তির ব্যবস্থা এবং শিক্ষা গ্রহণরত হিমোফেলিয়া রোগি বা তার সন্তানদের জন্য বিশেষ  উপবৃত্তি চালু করুন।