ডজনখানেক মামলার আসামী নড়াইলের টাউট হাজী পুলিশের খাচাঁয়!


প্রকাশিত : অক্টোবর ১৩, ২০১৭ ||

আগরদাড়ি প্রতিনিধি: ডজনখানেক মামলার আসামী, জামায়াতের অর্থদাতা নড়াইলের সোহরাব হোসেন ওরফে টাউট হাজীকে আটক করেছে পুলিশ। মঙ্গলবার বিকাল সাড়ে ৩টার দিকে তার নিজস্ব বাড়ি হতে তাকে আটক করে সদর থানায় নিয়ে আসে সাতক্ষীরা সদর থানা পুলিশ। সাতক্ষীরার শিয়ালডাঙ্গা গ্রামের হেকমত আলীর ছেলে মাহবুবার রহমান ইমনের দায়ের করা অর্থ আত্মসাতের মামলায় (সাতক্ষীরা সদর থানায় মামলা নং ৭৩) তাকে আটক করা হয়েছে। সোহরাব হোসেন ওরফে টাউট হাজী নড়াইলের ভাওয়াখালী গ্রামের আব্দুর রহিম মোল্যার ছেলে।
স্থানীয় সূত্রে যায়, টাউট হাজী ছোট বেলা থেকে সন্ত্রাসী কর্মকান্ডে লিপ্ত। তার একটি সন্ত্রাসী বাহিনী রয়েছে। সে তার এ বাহিনী নিয়ে বিভিন্ন সন্ত্রাসী কার্যক্রম চালিয়ে যায়। তার নামে ঢাকা সি.এম.এম ম্যাজিস্ট্রেট আদালত একাধিক মামলা ও জিডি আছে। যার নং-১১৫৩ তারিখ-১৯/০৯/২০১৬, ১১৫৪ তারিখ, ২০-০৯-২০১৬ ধারা-৪২০/৪০৬ নং। ওই মামলায় দীর্ঘদিন সে জেল হাজতে ছিলেন। এছাড়া তার বিরুদ্ধে ঢাকা হাইকোর্ট, ঢাকা জজকোর্ট, মহানগর দায়রা, নড়াইল কোর্ট, যশোর কোর্টে জঙ্গীবাদ, নাশকতাকারী সহ ১ ডজনের ও বেশি মামলা আছে।
এসময় অনেকে জানান, সোহরাব হোসেন ওরফে টাউট হাজী ব্যবসায়ীক ফাঁদে ফেলে ডজনখানেক ব্যবসায়ীকে পথে বসিয়েছে। সে তানহা এন্টারপ্রাইজ, হালিমা ফেব্রিক্স এর মালিকের কাছ থেকে হাতিয়ে নিয়েছে অর্ধকোটি টাকা। তার প্রতারণায় বেনাপোলের আকবর আলী, যশোর মনিরামপুরের আ. রহিমসহ অনেক সহজ সরল ব্যবসায়ীকে সর্বস্ব হারাতে হয়েছে। তার বিরুদ্ধে জাতীয়, নড়াইল, সাতক্ষীরা, খুলনার বিভিন্ন পত্রপত্রিকায় সংবাদটি প্রকাশিত হয়েছে।
এবিষয়ে সাতক্ষীরা সদর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মারুফ আহম্মেদ গ্রেপ্তারের সত্যতা নিশ্চিত করে জানান, সোহরাব হোসেনকে মঙ্গলবার বিকালে তার নিজস্ব বাসা থেকে গ্রেপ্তার করা হয় এবং বুধবার আদালতের মাধ্যমে তাকে জেলহাজতে প্রেরণ করা হয়।