রোহিঙ্গাদের ফিরিয়ে নিতে মিয়ানমারকে আহ্বান জানালেন খালেদা জিয়াও


প্রকাশিত : অক্টোবর ৩০, ২০১৭ ||

 

বাংলাদেশে আশ্রিত রোহিঙ্গাদের ফিরিয়ে নিতে মিয়ানমার সরকারের প্রতি জোরালো আহ্বান জানিয়েছেন বিএনপি চেয়ারপারসন খালেদা জিয়া। সোমবার (৩০ অক্টোবর) দুপুর সোয়া একটার দিকে কক্সবাজারের উখিয়ার ময়নাগোর কাটাখালী ক্যাম্পে রোহিঙ্গাদের ত্রাণ দেওয়ার পরে তিনি একথা বলেছেন।

এসময় খালেদা জিয়া বলেন, ‘মিয়ানমার সরকারকে বলবো, মানবতার স্বার্থে রোহিঙ্গাদের দেশে ফিরিয়ে নিন। তাদের ফিরিয়ে নিতে হবে। তাদের ফিরিয়ে নিয়ে নাগরিকত্ব দিতে হবে।’

খালেদা জিয়া আরও বলেন, ‘রোহিঙ্গাদের ফিরিয়ে দিতে সরকার উল্লেখযোগ্য কোনও উদ্যোগ গ্রহণ করতে পারে নাই। তারা (রোহিঙ্গারা) এখানে পরিবেশ নষ্ট করছে। গাছ কেটে ফেলছে। এতে পরিবেশের ভারসাম্য নষ্ট হচ্ছে।’

সরকারের সমালোচনা করে বিএনপি চেয়ারপারসন আরও বলেন, ‘রোহিঙ্গাদের মধ্যে যেভাবে ত্রাণ দেওয়া দরকার ছিল, সরকার তা পারে নাই। বরং তারা বিভিন্নভাবে ত্রাণ দিতে বাধা দিয়েছে।’

মিয়ানমার সরকারের সঙ্গে আলাপ-আলোচনা ও কূটনৈতিক তৎপরতার মাধ্যমে রোহিঙ্গাদের ফেরত পাঠানোর সমাধান খুঁজতে হবে বলেও জানিয়েছেন তিনি।

রোহিঙ্গাদের ত্রাণ দিলেন খালেদা জিয়া

এর আগে, কক্সবাজারের উখিয়ায় ময়নারগোর কাটাখালী রোহিঙ্গা ক্যাম্পে ত্রাণ বিতরণ করেছেন বিএনপি চেয়ারপারসন খালেদা জিয়া। এসময় তার সঙ্গে বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য মির্জা আব্বাস, নজরুল ইসলাম খানসহ সিনিয়র নেতারা উপস্থিত ছিলেন। সরাসরি রোহিঙ্গাদের হাতে ত্রাণ দেওয়ার নিয়ম নেই। তাই ক্যাম্পের দায়িত্বশীল কর্তৃপক্ষ সেনাবাহিনীর কাছেই সকালে সব ত্রাণ হস্তান্তর করা হয়েছে। পরে রোহিঙ্গা ক্যাম্প পরিদর্শন করেছেন খালেদা জিয়া।

উল্লেখ্য, রোহিঙ্গাদের ফিরিয়ে নিতে মিয়ানমারের সঙ্গে আলোচনা চালিয়ে যাচ্ছে সরকার। এছাড়াও ক্ষমতাসীন দল আওয়ামী লীগ ছাড়াও দেশের সব রাজনৈতিক দল রোহিঙ্গাদের ফিরিয়ে নেওয়ার জন্য বিভ্ন্নি সময় দাবি জানিয়েছে।



error: Content is protected !!