কেশবপুর বিলবোয়ালিয়ার অবৈধ বাঁধ সরাতে হাইকোর্টের নির্দেশ


প্রকাশিত : নভেম্বর ১২, ২০১৭ ||

 

কেশবপুর (যশোর) প্রতিনিধি: যশোরে কেশবপুর উপজেলার বিল বোয়ালিয়ার খাল থেকে অবৈধ বাঁধ অপসারণের নির্দেশ দিয়েছে  হাইর্কোট। জনস্বার্থে দায়ের করা এক রিট আবেদনের চুড়ান্ত শুনানি করে গত ৭ নভেম্বর বিচারপতি মইনুল ইসলাম চৌধুরী ও বচারপতি জেবিএম হাসানের বেঞ্চ এ আদেশ দেন। একই সঙ্গে এই বাঁধ অপসারণের বিষয়ে আগামী ৩০ দিনের মধ্যে আদালতে এফিডেভিট ইন কমপ্লাইন্স দাখিল করতে যশোরের জেলা প্রশাসক (ডিসি), কেশবপুর উপজেলা নির্বাহী আফিসার (ইউএনও) সহকারী কমিশনার ভূমি (এসিল্যান্ড) এর প্রতি নির্দেশ দিয়েছেন হাইর্কোট। রিটের পক্ষে শুনানী করেন এড. মনজিল মোরসেদ এবং এড. ইন পারসন হিসেবে শুনানী করেন এসএম বক্স কল্লোল। গত জুলাই মাসে জনসার্থে রিট আবেদনটি দায়ের করা হয়। কেশবপুরের ত্রিমোহিনী ইউনিয়নের মির্জানগর এবং বরণডালী গ্রামের খালে বাঁধ দিয়ে কৃষি কাজে বিঘœ সৃষ্টি করায় রিটটি করা হয়। রিটের প্রাথমিক শুনানী নিয়ে হাইর্কোট গত ৩১ জুলাই যশোরের ডিসি এবং কেশবপুরের ইউএনও এবং এসিল্যান্ডকে জয়েন্ট সার্ভে রির্পোট যৌথ জরিপ প্রতিবেদন) দাখিল করতে নির্দেশ দেন। পরে জয়েন্ট সার্ভে রির্পোটে বলা হয়, ঘের ব্যবসায়ী সেলিমুজ্জামান আসাদ বিল বোয়ালিয়ায় ৩১০ ফিট লম্বা অবৈধ বাঁধ দিয়েছেন। এতে করে পানি নিস্কাশন ও কৃষি কাজে অসুবিধা হচ্ছে। আদালতে এ প্রতিবেদন উপস্থাপন করে অবৈধ বাঁধটি ভেঙে অপসারণের দাবি জানান রিটকারীর আইনজীবী। আদালত আবেদন মঞ্জুর করে উপরোক্ত আদেশ দেন। ঘের ব্যবসায়ী আসাদের পক্ষে আইনজীবী ছিলেন ব্যারিস্টার সাইদুল আলম খাঁন।

অপরদিকে ঘের মালিক আদালতের অর্ডার স্থগিত চেয়ে আপিল বিভাগের চেম্বার জজ আদলতে আবেদন জানালে গত ৯ নভেম্বর  বিচারপতি সৈয়দ  মাহমুদ হোসেন নো অর্ডার আদেশ দেন। ফলে ওই বাঁধ ভাঙতে হবে বলে জানিয়েছেন রিটকারী পক্ষের আইনজীবী মনজিল মোরসেদ। স্থগিত আবেদনের পক্ষে ছিলেন এড. প্রবীর নিয়োগী।