লাঙলের ঘাঁটিতে আমি নৌকার দুর্গ বানাবো: ঝন্টু


প্রকাশিত : নভেম্বর ১৩, ২০১৭ ||

 

রংপুরে লাঙলের ঘাঁটিতে নৌকার দুর্গ গড়তে চান আসন্ন রংপুর সিটি করপোরেশন নির্বাচনে আওয়ামী লীগের প্রার্থী হিসেবে মনোনয়ন পাওয়া বর্তমান মেয়র সরফুদ্দীন আহমেদ ঝন্টু। শনিবার (১১ নভেম্বর) সন্ধ্যায় গণভবনে আওয়ামী লীগের মনোনয়ন বোর্ডের সভায় এই সিদ্ধান্ত চূড়ান্ত হয়। মনোনয়ন পাওয়ার পর বাংলা ট্রিবিউনের সঙ্গে কথা বলেন সরফুদ্দীন আহমেদ ঝন্টু। আলাপকালে তিনি দলীয় কোন্দল, ঐক্যসহ তৃণমূলের সমর্থন ইত্যাদি বিষয়ে কথা বলেছেন।

বাংলা ট্রিবিউন: মনোনয়ন পাওয়ার পর আপনার প্রতিক্রিয়া কী?

সরফুদ্দীন আহমেদ ঝন্টু: শেখ হাসিনা আমাকে নৌকা প্রতীক দিয়ে আমার মাথার ওপর বিরাট বোঝা তুলে দিয়েছেন। এই বোঝা সেদিন মুক্ত হবো যেদিন জয়যুক্ত হয়ে শেখ হাসিনার নৌকা আবার শেখ হাসিনার হাতে তুলে দিতে পারবো। আমি খুব খুশি, তবে সেদিনই পুরো প্রতিক্রিয়া ব্যক্ত করবো যেদিন নৌকাকে বিজয়ী করতে পারবো।

বাংলা ট্রিবিউন: আপনি জয়ের ব্যাপারে কতখানি আশাবাদী?

সরফুদ্দীন আহমেদ ঝন্টু: একজন প্রার্থী জয়ের ব্যাপারে সবসময় আশাবাদী হয়। তারপরও নৌকার জয় নিশ্চিত করার আগে কিছু বলতে পারছি না।

বাংলা ট্রিবিউন: রংপুরের মেয়র প্রার্থী নিয়ে ইতোমধ্যেই কোন্দল মাথা চাড়া দিয়ে উঠেছে, এটা ভোটের আগে মোকাবিলা করতে পারবেন?

সরফুদ্দীন আহমেদ ঝন্টু: হ্যাঁ পারবো। শেখ হাসিনা আমাকে নৌকা দিয়েছেন। নির্বাচনের আগে অবশ্যই কোন্দল থাকবে না। তৃণমূল আওয়ামী লীগ আমার সঙ্গে আছে। যারা প্রকৃত আওয়ামী লীগ করে, দলের মঙ্গল চায় তারা সবসময় আমার পক্ষে ছিল। স্থানীয় নেতাকর্মীরা সবসময় চেয়েছে আমি যেন নৌকা পাই। আওয়ামী লীগ বড় দল, এমন দলে কোন্দলও থাকে। তবে কতখানি কোন্দল নিরসন করতে পারলাম সেটাই হলো নেতার ক্যারিশমা।

বাংলা ট্রিবিউন: আপনি কী সবাইকে নিয়েই মাঠে নামবেন?

সরফুদ্দীন আহমেদ ঝন্টু: হ্যাঁ। আমি সবাইকে নিয়েই, দলের মধ্যে যারা শত্রু-মিত্র আছে প্রত্যেককে নিয়েই নির্বাচন করবো এবং নির্বাচনে জয়যুক্ত হতে চাই। আমার জন্য সবাই দোয়া করবেন। শত্রু-মিত্র সবার কাছে যাব। সবাইকে অনুনয়-বিনয় করব। তারপরও দলের কেউ যদি বিপক্ষে কাজ করে তবে নেত্রীকে (শেখ হাসিনা) তা অবহিত করব।

বাংলা ট্রিবিউন: রংপুর তো জাতীয় পার্টি অধ্যুষিত এলাকা, সেখানে আপনার পরিকল্পনা কী?

সরফুদ্দীন আহমেদ ঝন্টু: রংপুর লাঙলের ঘাঁটি, এটা সবাই জানে। কিন্তু এই লাঙলের ঘাঁটিতে আমি নৌকার দুর্গ বানাতে চাই। নৌকাকে বিজয়ী করতে চাই।