কেশবপুর বুড়িহাটি স্কুলের প্রধান শিক্ষককে মারপিট থানায় মামলা: আটক এক


প্রকাশিত : জানুয়ারি ৮, ২০১৮ ||

 

কেশবপুর (যশোর) প্রতিনিধি: কেশবপুরের বুড়িহাটি বহুমুখী মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষককে শনিবার স্কুলের ভেতর মারপিটসহ অবরুদ্ধ করে রাখা হয়। সংবাদ পেয়ে থানার পুলিশ যেয়ে তাকে উদ্ধার করে নিয়ে আসেন। এলাকাবাসি ও শিক্ষকরা জানায়, স্কুলের দপ্তরী কাম নৈশ প্রহরী মকছেদ আলীর সঙ্গে স্কুলের ভেতর প্রধান শিক্ষকের বাকবিতন্ডা ও হাতাহাতি হয়। এঘটনাকে কেন্দ্র করে এলাকবাসি এসে প্রধান শিক্ষককে অবরুদ্ধ করে রাখে। সংবাদ পেয়ে থানার পুলিশ ঘটনা স্থলে উপস্থিত হয়ে প্রধান শিক্ষককে অবরুদ্ধ থেকে উদ্ধার করেন।

প্রধান শিক্ষক শাহজাহান আলী জানান, গত ১৯ ডিসেম্বর রাতে ডিউটি না করে হাজিরা খাতায় স্বাক্ষর করায় নৈশ প্রহরী মকছেদকে কারণ দর্শানো নোটিশ দেয়া হয়। কতিপয় শিক্ষককের ইন্ধনে তিনিসহ এলাকার লোকজন এসে আমাকে মারপিট করেছেন। এসময় স্কুলের পাশে বাসা হওয়ায় আমার স্ত্রী মনিরা বেগম এগিয়ে এলে তাকেও মারপিট করে আসামিরা।

এ ঘটনায় প্রধান শিক্ষক শাহজান আলি বাদি হয়ে দপ্তরী কাম নৈশ প্রহরী মকছেদ, লালটু, আব্দুল হাই, রফিকুল ইসলাম ও সিরাজুল ইসলামসহ অজ্ঞতনামা ৫/৬ জনের নামে কেশবপুর থানায় মামলা করেন। যার নং ০৪। এবিষয় কেশবপুর থানার আফিসার ইনচার্জ (ভারপ্রাপ্ত) শাহজান আহম্মদে জানান, নৈশ প্রহরী মকছেদকে  আটক করে যশোর জেল হাজতে পাঠানো হয়েছে। বাকি আসামিদের আটক করার চেষ্টা চলছে।