আশাশুনির শ্রীউলায় ধর্ষণ মামলার আসামী জামিনে মুক্তিপেয়ে বাদীর পরিবারকে মারপিটের অভিযোগ


প্রকাশিত : জানুয়ারি ৯, ২০১৮ ||

 

আশাশুনি ব্যুরো: আশাশুনির বহুল আলোচিত রানু ধর্ষণ মামলার আসামী সম্প্রতি জামিনে মুক্তিপেয়ে বাদীর মাতাসহ তার পরিবারকে মারপিট করার অভিযোগ পাওয়া গেছে। অভিযোগে জানা গেছে, সোমবার বেলা ২টার দিকে উপজেলার শ্রীউলা ইউনিয়নের লাঙ্গলদাড়িয়া গ্রামে আতিয়ার সরদার দীর্ঘদিন যাবৎ নিজ ভোগদখলীয় সম্পত্তিতে মৎস্য ঘের করে আসছে। প্রতিদিনের ন্যায় আতিয়ারের স্ত্রী আঞ্জয়ারা খাতুন মৎস্য ঘেরে কাজ করতে গেলে  পূর্ব শত্রুতার জের ধরে রানু ধর্ষণ মামলার মূল আসামী মৃত শাহাবুদ্দীন শেখের ছেলে আব্দুস সবুর ও তার স্ত্রী কুলসুম কন্যা শামীমা খাতুনসহ অজ্ঞাত ৪/৫জন অস্ত্র শস্ত্রে সজ্জিত হয়ে অর্তকিত হামলা চালিয়ে আতিয়ারের স্ত্রীকে আচমকা মারপিট করে রক্তাক্ত জখম করে। এবিষয় ইউপি চেয়ারম্যান আবু হেনা সাকিলের কাছে স্থানীয় সাংবাদিকরা জানতে চাইলে তিনি বলেন, উক্ত তপশীল সম্পত্তি কেন্দ্রিক আমার পরিষদে অভিযোগ রয়েছে। বিষয়টি নিয়ে পরিষদে বসাবসির দিনও ধার্য আছে এবং শালিশ করে বিষয়টি নিষ্পত্তি করার আশ্বাসও দেয়া হয়েছে। এরই মধ্যে এমন ন্যাক্কারজনক ঘটনার জন্য আমি দু:খিত। এ রিপোর্ট লেখা পর্যন্ত ক্ষতিগ্রস্ত পরিবারের স্ত্রী আঞ্জুয়ারাকে মুমূর্ষ অবস্থায় উদ্ধার করে আশাশুনি হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। এব্যাপারে এ রিপোর্ট লেখা পর্যন্ত মামলার প্রস্তুতি চলছিল বলে আহতের পরিবারের পক্ষ থেকে  জানা গেছে।