উন্নয়ন মেলায় দায়সারা স্টল: নেই কোনো উন্নয়নের চিত্র


প্রকাশিত : জানুয়ারি ১৩, ২০১৮ ||

আব্দুস সামাদ: শহীদ আব্দুর রাজ্জাক পার্কের উন্নয়ন মেলায় সরকারের নানামূখী উন্নয়নের চিত্র তুলে ধরা হয়েছে। বর্ণিল সাজে সেজেছে শহীদ আব্দুর রাজ্জাক পার্ক। হাজার হাজার দর্শণার্থীর পদভারে মুখরিত। বন্ধু বান্ধব, শিক্ষক, শিক্ষার্থী, কৃষক, শ্রমিক, চাকরিজীবীসহ বিভিন্ন শ্রেণি পেশার মানুষ এসেছেন সরকারের সেবা সম্পর্কে জানতে। পিতার হাত ধরে এসেছে শিশুরাও। কিন্তু এ কী দৃশ্য দেখলেন দর্শণার্থীরা।
উন্নয়ন মেলায় স্টল থাকলেও সেখানে নেই কোনো লোক। কোনো কোনো স্টলে চেয়ার পর্যন্ত নেই। নেই লিফলেট, পোস্টার ও সেবাদানের নমুনামূলক চিত্র। তাছাড়া কোনো কোনো স্টলে জাতীয় পর্যায়ে কেন্দ্র থেকে সরবরাহকৃত কিছু লিফলেট ও পোস্টার থাকলেও সাতক্ষীরা জেলার উন্নয়নের কোনো তথ্যই নেই সেখানে। দায়সারাভাবে তারা স্টল দিয়েছেন। সরকারের কোনো উন্নয়নের খবর বা তথ্য তারা প্রচার করছে না। এমনই মন্তব্য করেছেন দর্শণার্থীরা। এসব সংস্থা বা দপ্তরের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা গ্রহণেরও দাবি জানান অনেকেই।
মেলা ঘুরে দেখা গেছে, লাবসা ও ফিংড়ি ইউনিয়ন পরিষদের স্টলে দেয়া হয়েছে খাবারের দোকান। কোন প্রকার উন্নয়ন কর্মকান্ড দেখা যাচ্ছে না জেলা সঞ্চয় অফিস, জেলা ক্রীড়া অফিস ও ক্রীড়া সংস্থা, বৈকারী, ঘোনা, শিবপুর, ভোমরা, আলিপুর, ধুলিহর, ব্রহ্মরাজপুর, আগরদাড়ি, ঝাউডাঙ্গা, বাঁশদহা ও কুশখালি ইউনিয়নে স্টলগুলোতে।
নামে মাত্র কার্যক্রম পরিচালনা করেছেন জেলা মৎস্য অফিস, যুব উন্নয়ন অধিদপ্তর, প্রাণি সম্পদ অধিদপ্তর, স্বাস্থ্য বিভাগ, স্বাস্থ্য প্রকৌশল অধিদপ্তর, জনস্বাস্থ্য প্রকৌশল অধিদপ্তর, পাট অধিদপ্তর, জেলা আনসার ও ভিডিপি এবং ৩১ আনসার ব্যাটালিয়ান, আবহাওয়া অফিস, সাতক্ষীরা পল্লি বিদ্যুৎ সমিতি, ওজোপাডিকো, বিটিসিএল, মাধ্যমিক শিক্ষা অফিস ও শিক্ষা প্রকৌশল অধিদপ্তর, বাংলাদেশ ক্ষুদ্র ও কুটির শিল্প কর্পোরেশন, পল্লী উন্নয়ন বোর্ড, একটি বাড়ি একটি খামার, পল্লী দারিদ্র বিমোচন ফাউন্ডেশন, জীবন বীমা কপোরেশন, সাধারণ বীমা কপোরেশন, প্রতিবন্ধী সেবা ও সহায়তা কেন্দ্র, ভোমরা স্থল বন্দর, বীমা উন্নয়ন ও নিয়ন্ত্রণ সংস্থা, সাতক্ষীরা পৌরসভা, শিল্পকলা, মাদক নিয়ন্ত্রণ অধিদপ্তর, জেলা কারাগার, সমাজসেবা অধিদপ্তর ও শিশু একাডেমী। এসব স্টলগুলোতে লোক থাকলেও নেই সাতক্ষীরা উন্নয়ন কর্মকান্ডের তেমন কোন চিত্র। দেয়া হচ্ছে না সাতক্ষীরায় বাস্তবায়িত প্রকল্পের তথ্যও।
মেলায় আগতরা জানায়, উন্নয়ন মেলায় সাতক্ষীরা জেলা উন্নয়ের চিত্র তুলে ধরাই মেলা উদ্দেশ্য হওয়া উচিত। কিন্তু অনেক স্টলে কোন প্রকার উন্নয়েন তথ্য বা চিত্র তুলে ধরা হচ্ছে না। অনেকে আবার নাম দিয়েও মেলার স্টলে উপস্থিত হচ্ছে। বিশেষ করে ইউনিয়ন পরিষদ গুলো জনগনকে সরাসরি সেবা দিয়ে থাকে। কিন্তু তারা কোন উন্নয়নে চিত্র তুলে ধরা তো দূরের কথা অনেকে উপস্থিত হচ্ছে না স্টলে।
লাবসা ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান আব্দুল আলিম বলেন, আমার জানা মতে স্টলে আমাদের লোক থাকার কথা। কিন্তু কেন এমন হলো সে বিষয়ে আমি খোজ খবর নিয়ে দেখছি।
এবিষয়ে সাতক্ষীরা অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক (সার্বিক) মো. জাকির হোসেন বলেন, এ বিষয়ে স্ব স্ব বিভাগ বলতে পারবে। তবে যদি কোন স্টল না আসে সে বিষয়ে আজ দেখা হবে।