আদালতে বিমর্ষ ছিলেন খালেদা জিয়া


প্রকাশিত : February 8, 2018 ||

 

আদালতে রায় ঘোষণার সময় বিমর্ষ ছিলেন খালেদা জিয়া। তিনি পুরোটা সময় মাথা নিচু করে বসেছিলেন।

বৃহস্পতিবার (৮ ফেব্রুয়ারি) জিয়া অরফানেজ ট্রাস্ট দুর্নীতি মামলায় বিএনপি চেয়ারপারসন খালেদা জিয়াকে পাঁচ বছরের সশ্রম কারাদণ্ড দেন আদালত। বিচারক কারাদণ্ড ঘোষণা করার আগ মুহূর্ত পর্যন্ত তিনি তার জন্য নির্ধারিত চেয়ারে মাথা নিচু করে বসেছিলেন।

বিচারক রায় ঘোষণা শেষে এজলাস ত্যাগ করলে পুলিশ আদালত কক্ষে ঢুকে ব্যারিকেড তৈরি করে। এসময় খালেদা জিয়াকে আর দেখা যায়নি। এর আগে আদালতে প্রবেশের সময় খালেদা জিয়ার সঙ্গে তার গৃহকর্মী ফাতেমাও ছিলেন। এছাড়া, আফরোজা আব্বাস ও সুলতানা আহমেদ খালেদার চেয়ারের পাশে দাঁড়িয়ে ছিলেন।

এরপর খালেদা জিয়ার আইনজীবী আব্দুর রাজ্জাক খান, মওদুদ আহমদ, শাহজাহান ওমর ও জমিরউদ্দিন সরকার পুলিশের ব্যারিকেডের মধ্যেই তার সঙ্গে পাঁচ মিনিট কথা বলেন। তাদের মধ্যে কী কথা হয়েছে জানতে চাইলে আব্দুর রাজ্জাক খান বাংলা ট্রিবিউনকে বলেন, ‘তার ওষুধ এবং প্রয়োজনীয় জিনিসপত্র কী লাগবে সেসব বিষয়ে এবং মামলার পরবর্তী কার্যক্রম নিয়েও কথা হয়েছে।’
আপিল করতে কতদিন সময় লাগতে পারে প্রশ্নে তিনি বলেন, ‘আমরা আজকেই (বৃহস্পতিবার) সার্টিফায়েড কপির জন্য আবেদন করেছি। রবিবারের ভেতরে সার্টিফায়েড কপি হাতে পেলে আপিল করা হবে।’