শ্যামনগরে পুকুরে ডুবে দুই বোনের মৃত্যু: শোকের মাতম


প্রকাশিত : মার্চ ১৩, ২০১৮ ||

নিজস্ব প্রতিনিধি: মরদেহ সামনে নিয়ে শোকের মাতমে ভাসছে মরিয়ম আক্তার সুমাইয়া (৫) আর শাহনাজ আক্তার মিষ্টির (৪) বাড়ি। ওদের মা বাবার আহাজারিতে ভারি হয়ে উঠেছে শ্যামনগরের আটুলিয়া ইউনিয়নের বাতাস। মঙ্গলবার সকালে দুই বোন মরিয়ম আক্তার সুমাইয়া ও শাহনাজ আক্তার মিষ্টি তাদের বাড়ির পাশে নিজের পুকুরের পানিতে ডুবে যায়। পরে তাদের লাশ উত্তোলন করা হয়। এ সময় শোকে আচ্ছন্ন হয়ে পড়ে পুরো গ্রাম আটুলিয়া মোল্লা বাড়ি। পরিবারের সদস্যরা জানান, সকালে বাড়িতে চলছিল বিয়ে পরবর্তী অনুষ্ঠান। চলছিল জামাই মেয়ে লোক কুটুম্বদের মিষ্টি খাওয়ার পালা। বাড়িতে তখনও আত্মীয় স্বজন অনেক। এই আনন্দের মধ্যে মনের খেয়ালে সুমাইয়া আর মিষ্টি ছোট্ট কলসী নিয়ে পানি আনতে বাড়ির পাশের পুকুরে নামে। এ সময় পানিতে পড়ে যায় তারা। কিছুক্ষণ ধরে তাদের দেখতে না পেয়ে শুরু হয় খোঁজাখুঁজি। পরে চোখে পড়ে দুই বোনের ভাসমান দেহ। সুমাইয়ার মা মর্জিনা ও মিষ্টির মা আসমা খাতুনের বিলাপে এখন বাতাস ভারি হয়ে উঠেছে। স্থানীয় ইউপি সদস্য হাবিবুর রহমান জানান, ময়না তদন্ত ছাড়াই সুমাইয়া ও মিষ্টিকে তাদের পারিবারিক গোরস্থানে দাফন করা হয়েছে। তিনি জানান এ ঘটনার পর গ্রাম জুড়ে বিলাপ চলছে। ওদের পারিবারিক সূত্র জানিয়েছে বাবা ভ্যানচালক নজরুল ইসলাম সানার তিন মেয়ে মুক্তা, হিরা ও সুমাইয়া। নজরুলের ভাই ভ্যান চালক নুর জালালের চার মেয়ে নারগিস, বিলকিস, বিউটি ও মিষ্টি। তাদের মধ্যে নারগিসের বিয়ে হয়েছে রোববার। এই বিয়ে নিয়েই বাড়িতে চলছিল আনন্দ হিল্লোল।