চুকনগরে লবণ পানি তুলে ধানগাছ নষ্ট করার অভিযোগ থানায়


প্রকাশিত : মার্চ ১৪, ২০১৮ ||

চুকনগর (খুলনা) প্রতিনিধি: চুকনগরে সরকারি আদেশের প্রতি বৃদ্ধাঙ্গলী দেখিয়ে প্রতি হিংসার বশবর্তী হয়ে এক ব্যক্তির ক্ষেতে লবণ পানি তুলে ধানগাছ নষ্ট করার অভিযোগ পাওয়া গেছে। এঘটনায় ভ্ক্তুভোগী ডুমুরিয়া থানায় একটি অভিযোগ দায়ের করেছেন।
প্রাপ্ত অভিযোগ সূত্রে জানা যায়, উপজেলা চাকুন্দিয়া গ্রামের মৃত নওশের আলী শেখের পুত্র আলমগীর হোসেন শেখ দীর্ঘদিন ধরে মালতিয়া মৌজার গাদরছা বিলে তার পৈত্রিক সম্পত্তিতে বেড়িবাধ নির্মাণ করে মাছ চাষের পাশাপাশি প্রতি বছরের ন্যায় এ মৌসুমেও ইরি ধান চাষ করেছেন। বর্তমানে ধানগাছগুলো প্রায় এক থেকে দেড় হাত লম্বা হয়েছে। ফলে প্রচুর ফলন হওয়ার সম্ভাবনা থাকার কারণে তার পাশ্ববর্তী ঘের মালিক হিংসার বশবর্তী হয়ে ধানগাছ নষ্ট করার হীন মানসিকতায় তার ছোট্ট একটি ডগে প্রতিনিয়ত স্যালো মেশিন দিয়ে ঘ্যাংরাইল নদী থেকে লবণ পানি তুলে ধানগাছ ডুবিয়ে দিয়েছে। বর্তমানে ধানগাছগুলোর শিকড় পচে লালচে আকার ধারণ করেছে। এতেও তারা ক্ষ্যান্ত না হয়ে গত ৮মার্চ সকাল ৮টার দিকে তারা আবারও পানি দিয়ে তার ধানক্ষেত তলিয়ে দিয়েছে। এঘটনায় রাত ৮টার দিকে চুকনগর বাজারে তাদের সাথে দেখা হলে এভাবে প্রতিনিয়ত হিংসা পরায়ন হয়ে তার ধান ক্ষেতে লবণ পানি তুলে দেয়ার কারণ জানতে চাইলে তারা আলমগীরকে অকথ্য ভাষায় গালিগালাজ করে বিভিন্ন ধরণের ক্ষয় ক্ষতির হুমকি প্রদান করে। নিরুপায় হয়ে আলমগীর হোসেন গত ১০ মার্চ উপজেলা মালতিয়া গ্রামের এরশাদ আলী শেখের পুত্র জাকির হোসেন শেখ এবং নওশের আলী শেখের পুত্র লাভলুর রহমান শেখের নাম উল্লেখ করে ডুমুরিয়া থানায় একটি অভিযোগ দায়ের করেন।