শার্শায় কৃষকের মধ্যে সেক্সফেরোমন ফাঁদ বিতরণ


প্রকাশিত : মার্চ ১৪, ২০১৮ ||

বেনাপোল (যশোর) প্রতিনিধি: নিরাপদ সবজি উৎপাদনের লক্ষে কীটনাশক ছেড়ে জৈবিক বালাইনাশক ব্যাবহারে কৃষকদের প্রশিক্ষণ পরামর্শ ও সহযোগিতা দিচ্ছেন কৃষি সম্প্রসারণ অধিদপ্তর। এরই অংশ হিসেবে যশোরের শার্শা উপজেলার শতাধিক কৃষকের মধ্যে সেক্সফেরোমন ফাঁদের সরঞ্জামাদি বিতরণ করা হয়েছে। নিরাপদ সবজি উৎটপাদনে এগিয়ে এসেছে শার্শার কৃষকেরা। বিনামূল্যে এই সরঞ্জামাদি পেয়ে খুশি এলাকার চাষিরা। পটল, কলা, বেগুন, উচ্ছে, কুমড়া, কদুসহ বিভিন্ন সবজিতে পোকামাকড় রক্ষায় কৃষকেরা ব্যবহার করতো বিষাক্ত কীটনাশক। ফলে এসব সবজি খেয়ে বিভিন্ন জটিল কঠিন রোগে আক্রান্ত হতো মানুষ। কৃষি ক্ষেত্রে লেগেছে আধুনিকতার ছাপ। কৃষকের চাষের জমিতে বাশের উপরে লাগানো একটি প্লাষ্টিকের পাত্রে সেক্সফেরোমন ঔষধ রেখে দমন করা হয় পোকা। পুরুষ পোকা নিধন হয় গন্ধে। কৃষক পায় স্বাস্থ্যসম্মত সবজি। লাভবান হন তারা। উপজেলা প্রশাসনের অর্থায়নে মঙ্গলবার সকালে জৈবিক বালাইনাশক প্রদর্শনীর এসব সরজ্ঞামাদি শাশা উপজেলা সদরে কৃষকদের মধ্যে বিতরণ করেন উপজেলা নির্বাহী অফিসার পূলক কুমার মন্ডল ও কৃষি কর্মকতা হীরক কুমার সরকার। এসময় উপজেলা ভাইস চেয়ারম্যান মেহেদী হাসানসহ কৃষি কর্মকর্তারা উপস্থিত ছিলেন।