কলারোয়ায় ঈদগাহে মাটি ভরাটের টিআর প্রকল্পের টাকা আত্মসাতের অভিযোগ


প্রকাশিত : জুন ১৩, ২০১৮ ||

 

নিজস্ব প্রতিনিধি: কলারোয়ায় টিআর প্রকল্পে বরাদ্দকৃত ঈদগাহের মাটি ভরাটের টাকা আত্মসাতের অভিযোগ উঠেছে। উপজেলার ৯নং হেলাতলা ইউনিয়নের ৪নং ওয়ার্ডের উত্তর দিগং গ্রামের দু’টি ঈদগাহে নামমাত্র কয়েকঝুড়ি মাটি দিয়ে বরাদ্দকৃত ৫৪ হাজার টাকা আত্মসাতের অভিযোগে কলারোয়া উপজেলা নির্বাহী অফিসার বরাবর দরখাস্ত দেয়া হয়েছে। ৪নং ওয়ার্ড আওয়ামী লীগের সভাপতি শামছুর গাজী, সাধারণ সম্পাদক আজগার আলীসহ আরো অনেকে স্বাক্ষর করে ওই অভিযোগপত্র দাখিল করেছেন। দরখাস্তের অনুলিপি সাতক্ষীরা ডিসি, জেলা প্রকল্প বাস্তবায়ন অফিসার ও জেলা দুদকে প্রেরণ করা হয়েছে।

জানা গেছে, ২০১৭-১৮ অর্থবছরে টিআর প্রকল্পের আওতায় হেলাতলা ইউনিয়নের ৪নং ওয়ার্ডের উত্তর দিগং গ্রামের দু’টি ঈদগাহে মাটি ভরাটের জন্য ৫৪ হাজার টাকা বরাদ্দ হয়। কিন্তু একটি ঈদগায় কর্মসূচির মহিলাদের দিয়ে কয়েক ঝুড়ি মাটি দেয়া হয়। আর বাকী কোন কাজ না করে টাকা আত্মসাত করা হয়েছে। ঈদগাহটি খানা বা নিচু হওয়ায় আসন্ন ঈদের নামাজ পড়াও কষ্টকর হতে পারে।

অভিযোগে আরো বলা হয়েছে, চলতি এলজিএসপি প্রকল্পে দিগং মোড় থেকে আকিমুদ্দীনের বাড়ি অভিমূখে রাস্তা সংস্কার ও পাইলিং বাবদ ১ লাখ ৪৭ হাজার টাকা বরাদ্দ হয়। কিন্তু ওই কাজ যেনতোনেভাবে সম্পন্ন করার ফলে বর্তমান সরকারের অর্জন প্রতিবন্ধকতা সৃষ্টি হয়েছে। ওই প্রকল্প সমূহ বাস্তবায়ন সভাপতি ওয়ার্ড মেম্বর আসাদুজ্জামান আসাদের বিরুদ্ধে টাকা আত্মসাতের অভিযোগ আনা হয়েছে। বিষয়টি তদন্তপূর্বক কাজগুলো যাতে যথাযথভাবে সম্পন্ন হয় তার সুব্যবস্থা করতে আবেদনকারীরা আহবান জানিয়েছেন।