স্কুলের জমিতে কমিউনিটি ক্লিনিক স্থাপনের সিদ্ধান্তে এলাকাবাসির ক্ষোভ


প্রকাশিত : আগস্ট ৪, ২০১৮ ||

নিজস্ব প্রতিনিধি: দেবহাটা উপজেলার শশাডাংগা সরকারি প্রাইমারি স্কুলের জমিতে কমিউনিটি ক্লিনিক গড়ে তোলার সিদ্ধান্তের বিরুদ্ধে ফুসে উঠেছে গ্রামবাসি। গ্রামবাসির অভিযোগ, শশাডাংগাসহ আশেপাশে সরকারের শতশত বিঘা জমি রয়েছে। সেখানে কমিউনিটি ক্লিনিক স্থাপন না করে স্থানীয় ভূমিদস্যুদের কুপরামর্শে কোমলমতি শিশুদের খেলার জন্য এক চিলতে জায়গা দখল করে সেখানে কমিউনিটি ক্লিনিক স্থাপনের সিদ্ধান্ত নেয়া হয়েছে। এ সিদ্ধান্ত বাস্তবায়ন হলে কোমলমতি শিশুদের আর খেলার মাঠ থাকবে না। এলাকার একটিমাত্র প্রাইমারি স্কুল মাঠে শীত, গ্রীষ্ম, বর্ষা সব ঋতুতেই বিকেল হলে শিশুদের কোলাহলে মুখরিত হয় খেলার মাঠ। যে মাঠে ক্রিকেট, ফুটবল, হা-ডু-ডু, দাঁড়িয়াবাঁধাসহ গ্রাম বাংলার ঐতিহ্যবাহী নানা খেলায় মেতে থাকে শিশুরা, সেই মাঠে ওই ক্লিনিক স্থাপিত হলে চিরতরে স্তব্দ হয়ে যাবে শিশুদের পায়ের আওয়াজ।
এদিকে এলাকাবাসির আবেদনের প্রেক্ষিতে জেলা প্রাথমিক শিক্ষা অফিসার গত ২আগস্ট ৩৮.০১.৮৭০০.০০০.২৭.০০১.১৮-১৬১১/১(৫) নং স্মারকের একপত্রে দেবহাটা উপজেলার ৪৩নং শশাডাংগা সরকারি প্রাইমারি স্কুলের নিজস্ব জমিতে যাতে কমিউনিটি ক্লিনিক স্থাপন না হয় সেজন্য প্রাথমিক শিক্ষা অধিদপ্তরের মহা পরিচালক, বিভাগীয় উপ-পরিচালক, পুলিশ সুপার সাতক্ষীরাসহ বিভিন্ন দপ্তরে আবেদন করেছেন।
এলাকাবাসি জানান, বিদ্যালয়ের নিজস্ব জমিতে ৩০ ফুট দৈর্ঘ্য ও ২৮ ফুট প্রস্থ বিশিষ্ট কমিউনিটি ক্লিনিক স্থাপনের পরিকল্পনা বাস্তবায়ন হলে বিদ্যালয়ের জন্য ৯৮৮ ফুট দৈর্ঘ্য ও ৩২ ফুট দৈর্ঘ্যরে যে নতুন ভবন নির্মাণের কার্যক্রম গ্রহণ করা হয়েছে তা বাধাগ্রস্ত হবে। স্কুলের জমিতে কমিউনিটি ক্লিনিক স্থাপনের সিদ্ধান্তের প্রতিবাদ জানিয়ে এলাকার অভিভাবকরা সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষের আশুহস্তক্ষেপ কামনা করেছেন। একইসাথে তারা এলাকার সরকারি খাসজমিতে উক্ত ক্লিনিক স্থাপনের জোর দাবি জানিয়েছে।