আজ স. ম আলাউদ্দিনের ৭৪তম জন্মদিন


প্রকাশিত : August 29, 2018 ||

আসাদুজ্জামান সরদার: আজ দৈনিক পত্রদূতের প্রতিষ্ঠাতা সম্পাদক বীর মুক্তিযোদ্ধা স. ম আলাউদ্দীনের ৭৪তম জন্মদিন। ১৯৪৫ সালের এই দিনে তিনি তালা উপজেলার নগরঘাটা ইউনিয়নের মিঠাবাড়ি গ্রামের সম্ভ্রান্ত মুসলিম পরিবারে জন্ম গ্রহণ করেন। তার পিতার নাম মরহুম সৈয়দ আলী সরদার এবং মাতার নাম সখিনা খাতুন। স. ম আলাউদ্দীন ১৯৬২ সালে কলারোয়া হাইস্কুল থেকে ম্যাট্রিকুলেশন পাশ করেন। ১৯৬৪ সালে সাতক্ষীরা কলেজ থেকে ইন্টারমিডিয়েট এবং ১৯৬৭ সালে খুলনা বিএল কলেজ থেকে বিএ পাশ করেন। এরপর ১৯৭৫ সালে রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ের অধীনে বাংলা সাহিত্যে তিনি এমএ পাশ করেন। ১৯৬২ সালে মাধ্যমিকে ছাত্র থাকা অবস্থায় স. ম. আলাউদ্দীন অংশ নেন কুখ্যাত হামিদুর রহমান শিক্ষা কমিশন বিরোধী আন্দোলনে। এরপর হামিদুর রহমান শিক্ষানীতির বিরুদ্ধে আন্দোলনে যোগ দিয়ে তিনি রাজনীতিতে হাতেখড়ি নেন।
১৯৬৬ সালের ছয়দফা আন্দোলন, ছাত্রদের এগার দফা আন্দোলনসহ বিভিন্ন আন্দোলনে তিনি সাতক্ষীরা অঞ্চলে সক্রিয় ভূমিকা পালন করেন। ১৯৬৮ সালের গণআন্দোলনেও স. ম আলাউদ্দীন বলিষ্ঠ ভূমিকা পালন করেন। ১৯৭০ সালের নির্বাচনে তালা-কলারোয়া নির্বাচনী এলাকা থেকে তিনি প্রাদেশিক পরিষদের সদস্য নির্বাচিত হন। তৎকালীন পূর্ব পাকিস্তানের তিনিই ছিলেন সর্ব কনিষ্ঠ প্রাদেশিক পরিষদ সদস্য। ১৯৭২ সালে তিনি জাসদে যোগদান করেন। ১৯৮০ সালে তিনি পুনরায় আওয়ামী লীগে ফিরে আসেন। মৃত্যুর পূর্ব মুহূর্ত পর্যন্ত বিভিন্ন সময়ে তিনি তালা উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি ও জেলা আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক ছিলেন। ১৯৭৫ সালের ১৬ ডিসেম্বর থেকে ১৯৭৬ সালের জুন মাস পর্যন্ত তিনি কারাবরণ করেন। পরবর্তীতে আরও একবার তিনি কারাবরণ করেন।
১৯৭১ সালের মহান মুক্তিযুদ্ধের সংগঠক হিসেবে স. ম আলাউদ্দিন ছিলেন অন্যতম। তৎকালীন জাতীয় পরিষদ এবং প্রাদেশিক পরিষদে আওয়ামী লীগের ৪৬৫ জন সদস্যের মধ্যে কয়েকজন গ্রেপ্তার হন এবং কয়েকজন আত্মসমর্পন করেন। এছাড়া অন্যরা প্রতিবেশি রাষ্ট্র ভারতে গিয়ে মুক্তিযুদ্ধ সংগঠিত করেন এবং নেতৃত্ব দেন। হাতে গোনা কয়েকজন সরাসরি রণাঙ্গনে অস্ত্র হাতে যুদ্ধ করেন। তাদেরই একজন সর্বকনিষ্ঠ প্রাদেশিক পরিষদ সদস্য স. ম আলাউদ্দিন।
১৯৯৫ সালের ২৩ জানুয়ারি প্রতিষ্ঠা করেন দৈনিক পত্রদূত পত্রিকা। তিনি দৈনিক পত্রদূত’র প্রতিষ্ঠাতা সম্পাদক ছিলেন। স. ম আলাউদ্দিন বুঝতে পেরেছিলেন, অবহেলিত সাতক্ষীরাকে উন্নত করতে হলে জনগণের দাবি জোরালোভাবে তুলে ধরতে হবে। এজন্য তিনি দৈনিক পত্রদূতকে গণমানুষের পত্রিকায় পরিণত করেন।
এছাড়া স. ম আলাউদ্দিন প্রতিষ্ঠা করেন চেম্বার অব কমার্স, ভোমরা স্থল বন্দর ব্যবহারকারি সমিতি, বঙ্গবন্ধু পেশাভিত্তিক স্কুল, আলাউদ্দীন ফুড্স এন্ড কেমিক্যাল, নগরঘাটা মা ও শিশু স্বাস্থ্য কেন্দ্রসহ অসংখ্য সামাজিক প্রতিষ্ঠান। মুক্তিযোদ্ধা সংহতি পরিষদের সভাপতি ছিলেন স. ম আলাউদ্দিন। বৃহত্তর খুলনা উন্নয়ন সংগ্রাম কমিটির যুগ্ম আহবায়ক ছিলেন স. ম আলাউদ্দিন। এমনিভাবে সাতক্ষীরার উন্নয়ন ভাবনা নিয়ে সময় কাটাতেন স. ম আলাউদ্দিন। ১৯৯৬ সালের ১৯ জুন রাত ১০টা ২৩ মিনিটে নিজ পত্রিকা অফিসে কর্মরত অবস্থায় সাতক্ষীরার গড ফাদারদের ভাড়া করা কিলারের কাটা রাইফেলের গুলিতে নির্মমভাবে নিহত হন স. ম আলাউদ্দিন।