শ্যামনগরে দালাল চক্র বৃদ্ধি!


প্রকাশিত : সেপ্টেম্বর ১৩, ২০১৮ ||

পত্রদূত রিপোর্ট: শ্যামনগরের বিভিন্ন ইউনিয়নে পুলিশের সহায়তা করার আড়ালে মাদকদ্রব্য সেবন ও ব্যবসা জমজমাট হচ্ছে। নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক অনেকেই জানান, সম্প্রতি শ্যামনগরে বিভিন্ন ইউনিয়নে নাশকতার মামলার কয়েক শত জামাত-বিএনপি লোক আসামী হয়েছে। ফলে এলাকায় পুরুষ শুন্য হয়ে পড়েছে। এ সুযোগে কাশিমাড়ীর নজরুল ইসলাম, আটুলিয়ার সবুর পাড়, ওলিউর রহমান, জহুর আলী, কৈখালী, ভেটখালী, নূরনগর, কাশিমাড়ী, ঈশ্বরীপুরসহ অনেক এলাকায় দালালের উপদ্রুপ বৃদ্ধি পেয়েছে। দালাল চক্রটি পুলিশের সাথে সখ্যতা সৃষ্টি করে নিরাপদ ও অসহায় লোকদের নাশকতার মিথ্যা মামলায় জড়ানোর ভয় দেখিয়ে টাকা নেওয়ার পাঁয়তারা চালানোর অভিযোগ পাওয়া গেছে। এছাড়া চক্রটি মাদক সেবন ও মাদক ব্যবসার সাথে জড়িত থাকার বিষয়টি সুষ্ঠুভাবে তদন্ত করলে প্রমান মিলবে বলে একাধিক সুত্রে জানা গেছে। এলাকাবাসি দালাল চক্রের বিরুদ্ধে মুখ খুলতে সাহস পাচ্ছে না। কারণ দালাল চক্রটি পুলিশকে সামনে রেখে পিছনে ফায়দা লুটে নেয়। পুলিশের কিছু লোকও এসব দালালদের আশ্রয় প্রশ্রয় দিয়ে মাথায় তুলে রেখেছে। ফলে দাললদের প্রভাবে সাধারণ মানুষ আতঙ্কিত। তারা দালালমুক্ত থানা দেখতে চায়। প্রতিদিন সকাল থেকে গভীর রাত পর্যন্ত থানায় থেকে দালালী করে। পুলিশের সাথে গুজুর গুজুর ফুসুর ফুসুর করে সাধারণ মানুষের চরম হয়রানি করছে। পুলিশ সুপার মহোদয়ের কাছে শ্যামনগরবাসির আকুল আবেদন থানা ক্যাম্পাসে এসব দালালদের অবাঞ্ছিত করা হোক।