ছাত্রলীগের সাবেক সভাপতি মামুন হত্যা মামলার আসামী দুই সহোদর এলাকা ছেড়ে এখন শহরে!


প্রকাশিত : নভেম্বর ৯, ২০১৮ ||

নিজস্ব প্রতিনিধি: সাতক্ষীরা সিটি কলেজ শাখার ছাত্রলীগের সাবেক সভাপতি ও প্রভাষক এএমবি মামুন হত্যা মামলার চার্জশীটভুক্ত আসামী মোস্তাফা মাহবুবুর আলমের অত্যাচারে অতিষ্ঠ হয়ে উঠেছে এলাকাবাসি। এলাকা ছেড়ে তিনি এখন সাতক্ষীরা শহরে নিজ বাড়িতে নিয়ে বহাল তবিয়তে রয়েছেন। পালিয়ে সাতক্ষীরায় এসে থাকলেও তিনি এখনও জামাতে অর্থ দিয়ে সহায়তা ও সাধরণ মানুষের জমি দখল করে হয়রানি করে চলেছেন।
আশাশুনি উপজেলার শ্রীউলা ইউনিয়নের শ্রীউলা গ্রামের বদরুদোজা চৌধুরীর ছেলে কামরুল ইসলাম কবির জানান, শ্রীউলা গ্রামের মৃত ফজলুর রহমানের ছেলে মোস্তফা মাহবুবুল আলম ও মাওলানা রফিকুল ইসলামের অত্যাচারে এলাকাবাসি অতিষ্ঠ হয়ে উঠেছে। তারা এলাকায় সাদ্দাম বাহিনী বলে পরিচিত। তাদের দুই সহোদরের ও তার বাহিনীরা এলাকায় জমিদখল থেকে শুরু করে এমন কোন এহেন কাজ নেই তারা করেন না। তাদের ভয়ে এলাকায় কেউ মুখ খুলতে সাহস পায় না। তারা এখনও জামাতের অর্থযোগানদাতা ও জামাতকে সংগঠিত করার জন্য এলাকায় কাজ করছে। তিনি আরও বলেন, তারা এলাকা ছেড়ে এক ভাই মাওলানা রফিকুল ইসলাম ঢাকায় অবস্থান করছেন। অন্য ভাই মোস্তফা মাহবুবুল আলম সাতক্ষীরা শহরের পুরাতন সাতক্ষীরা এলাকায় দাসপাড়ায় নিজ বাড়িতে থাকে।
এ ব্যাপারে মোস্তফা মাহবুবুল আলমের সাথে যোগাযোগ করা হলে তিনি জানান, আমাদের নামে যেসব মামলা আছে সবগুলোতেই আমরা জামিনে আছি। নিজ বাড়িতে না, আমি ভাড়া বাড়িতে থাকি।
আশাশুনি থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) বিপ্লব কুমার নাথ জানান, তাদের নামে যদি গ্রেপ্তারি পরোয়ানা থাকে তাকে অবশ্যই আইনের আওতায় আনা হবে।