কলারোয়ায় ৯৯৯-এ ফোন করে হারিয়ে যাওয়া শিশুকে ফিরে পেলো পরিবার


প্রকাশিত : ডিসেম্বর ৬, ২০১৮ ||

নিজস্ব প্রতিনিধি: ৯৯৯ নম্বরে ফোন করে হারিয়ে যাওয়া শিশু মইনুদ্দিন (৯) কে ফিরে পেলো তার স্বজনরা। কলারোয়ায় এমনটি ঘটেছে। বুধবার সকালে হারিয়ে যাওয়ার পর বিকেলে সন্তানকে ফিরে পেয়ে উৎফুল্ল মাতা কৃতজ্ঞতা জানিয়েছেন ন্যাশনাল ইমার্জেন্সি সার্ভিসের পুলিশি সেবায়। জানা গেছে, সাতক্ষীরার দেবহাটা থানার গোপাখালী-রহিমপুর গ্রামের আব্দুল কাদেরের স্ত্রী হিরা খাতুন তার ছেলে মইনুদ্দিনকে নিয়ে বাপের বাড়ি কলারোয়া উপজেলার হঠাৎগঞ্জ গ্রামের সাবেক মেম্বর আব্দুল হান্নানের বাড়িতে বেড়াতে আসেন। বুধবার সকালে নানার বাড়ি থেকে বাইরে ঘুরতে বেড়িয়ে আর ফেরেনি মইনুদ্দিন। পরে স্বজনরা আশপাশে খোঁজ নিয়ে শিশুপুত্রকে না পেয়ে তাৎক্ষণিক টোলফ্রি ন্যাশনাল ইমার্জেন্সি সার্ভিসের ৯৯৯ নম্বরে ফোন করে বিষয়টি অবগত করেন। সেখান থেকে কলারোয়া পুলিশ বিষয়টি জানতে পেরে বিভিন্ন এলাকায় সন্ধান চালানো শুরু করেন। পরবর্তীতে বিকেলের দিকে কেঁড়াগাছির দক্ষিণপাড়া মোড় থেকে স্থানীয়দের সহায়তায় পুলিশ উদ্ধার করে মইনুদ্দিনকে। পথ ভুলে হাটতে হাটতে সেখানে পৌছায় বলে প্রাথমিকভাবে শিশুটি জানায়। পরে তার মা ও বাবাকে থানায় ডেকে এনে তাদের হাতে হারিয়ে যাওয়ার পর উদ্ধার হওয়া শিশুটিকে তুলে দেয়া হয়। এসময় মইনুদ্দিনের পিতা ও মাতা কলারোয়া থানা পুলিশসহ ন্যাশনাল ইমার্জেন্সি সার্ভিসের পুলিশি সেবার প্রতি কৃতজ্ঞতা প্রকাশ করে ধন্যবাদ জানিয়েছেন।
বিষয়টি নিশ্চিত করে থানার ওসি শেখ মারুফ আহম্মদ বলেছেন- ‘৯৯৯নং থেকে আমাদেরকে জানানোর পর হারিয়ে যাওয়া শিশুটিকে উদ্ধার করে তার পিতামাতার কাছে তুলে দেয়া হয়েছে।’