কলারোয়ায় হাতে-হাত মিলিয়ে ভ্রাতৃত্বের বন্ধনে আ.লীগের স্বপন-লাল্টু


প্রকাশিত : December 12, 2018 ||

 

নিজস্ব প্রতিনিধি: কলারোয়ায় হাতে-হাত মিলিয়ে ভ্রাতৃত্বের বন্ধনে আ.লীগের স্বপন-লাল্টু। গত কয়েক বছর ধরে উপজেলা আ.লীগের সভাপতি, উপজেলা চেয়ারম্যান ফিরোজ আহম্মেদ স্বপন এবং দলটির সাধারণ সম্পাদক আমিনুল ইসলাম লাল্টু একই রাজনৈতিক অঙ্গনে দু’মেরুতে অবস্থান করছিলেন। দৃশ্যত আর কার্যত দু’টি গ্রুপে রূপ নিয়েছিলো উপজেলার শাসকদলের নেতাকর্মীদের মাঝে। এরই মাঝে মঙ্গলবার (১১ডিসেম্বর) একটি অনুষ্ঠানে দু’জন হাতে হাত মিলিয়ে ভ্রাতৃত্বের বন্ধনে সকল ভুল বোঝাবুঝির অবসান ঘটিয়ে একাত্মতায় আসার দৃশ্যপট পরিদৃশ্যমান হলো।

১১ ডিসেম্বর মঙ্গলবার সন্ধ্যার পর কলারোয়ার কেঁড়াগাছি ইউনিয়নের শ্রীশ্রী ব্রহ্ম হরিদাস ঠাকুরের জন্মভিটা আশ্রমে ১৬প্রহর ব্যাপী শ্রীশ্রী তারক ব্রহ্ম নাম সংকীর্তন অনুষ্ঠান একপর্যায়ে দীর্ঘদিনের রাজনৈতিক বিভক্তির মিলনস্থলে পরিণত হয়।

জানা যায়- কলারোয়া উপজেলার আওয়ামীলীগের সভাপতি ফিরোজ আহমেদ স্বপন ও সাধারণ সম্পাদক আমিনুল ইসলাম লাল্টুর মধ্যে দলীয় অঙ্গনে মতপার্থক্য ও বিভক্তি চলে আসছিল। স্বাভাবিকভাবে এই বিভক্তির কারণে এই দুই নেতা দুই গ্রুপ তথা দুই মেরুর বাসিন্দা ছিলেন। কিন্তু মঙ্গলবারের ওই অনুষ্ঠানে তাদেরকে এক করে দিয়ে তারা মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নৌকা প্রতীককে বিজয়ী করতে ঐক্যবদ্ধ হন।

অনুষ্ঠানে উপস্থিত অনেকে জানান- অনুষ্ঠানস্থলের মূল মঞ্চে প্রধান অতিথি সাতক্ষীরা-১ আসনের সাংসদ এড.মুস্তফা লুৎফুল্লাহ’র দু’পাশে বসে ছিলেন ফিরোজ আহম্মেদ স্বপন ও আমিনুল ইসলাম লাল্টু। প্রধান অতিথির বক্তব্যের আগে অনুষ্ঠানের সঞ্চালক বোয়ালিয়া মুক্তিযোদ্ধা ডিগ্রি কলেজের প্রভাষক আশ্রমের পরিচালনা পরিষদের সভাপতি কার্তিক চন্দ্র মিত্র উপজেলা আ.লীগের শীর্ষ দু’নেতাকে এক হওয়ার আহবান জানান। তাৎক্ষনিক এড.মুস্তফা লুৎফুল্ল্যাহ ও অস্ট্রেলিয়ার সিডনি আ.লীগের সভাপতি কেঁড়াগাছি ইউপির প্রাক্তন চেয়ারম্যান এসএম আলতাফ হোসেন লাল্টু ঐকান্তি প্রচেষ্টা, অনুরোধ আর সহযোগিতায় একে অপরের হাতে হাত রেখে দীর্ঘদিনের বিবাদ ও বিভক্তির ইতি টানেন ফিরোজ আহম্মেদ স্বপন ও আমিনুল ইসলাম লাল্টু। এই মহেন্দ্রক্ষণে উপস্থিত আ.লীগের নেতাকর্মীদের করতালি ও জয় বাংলা- জয় বঙ্গবন্ধু স্লোগানে অনুষ্ঠানস্থল মুখোরিত হয়ে ওঠে।

তখন মঞ্চে উপস্থিত ছিলেন কলারোয়া থানার অফিসার ইনচার্জ শেখ মারুফ আহম্মেদ, পরিদর্শক (তদন্ত) জেল্লাল হোসেন, উপজেলা আ.লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক সম মোরশেদ আলী, উপজেলা পূজা উদযাপন পরিষদের সভাপতি বাবু মনোরঞ্জন সাহা, হিন্দু-বৌদ্ধ-খ্রিস্টান ঐক্য পরিষদের সভাপতি সিদ্ধেশ্বর চক্রবর্তী, উপজেলা ও ইউনিয়ন আওয়ামীলীগের নেতৃবৃন্দ।

অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে এড.মুস্তফা লুৎফুল্ল্যাহ বলেন- ‘৭১ সালের পরাজিত শক্তিরা বাঙালি জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানকে সপরিবারে হত্যা করে এদেশকে পাকিস্তান বানাতে চেয়েছিল। আজ তার কন্যা মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বিশ্ব উন্নয়নের রোল মডেল। বাংলাদেশের চলমান এই উন্নয়ন অব্যাহত রাখতে হলে মাননীয় প্রধানমন্ত্রীর নৌকা প্রতীককে বিজয়ী করতে আমাদের সকল আভ্যন্তরীণ ভেদাভেদ ভুলে ঐক্যবদ্ধ হতে হবে। তাহলেই শেখ হাসিনাকে আবারও প্রধানমন্ত্রী হিসেবে দেখতে পাবো।’

এসএম আলতাফ হোসেন লাল্টু বলেন- ‘আমারা মাননীয় প্রধানমন্ত্রীর উন্নয়নের সাক্ষী। যখন বহির্বিশ্বে মাননীয় প্রধানমন্ত্রীর প্রশংসা শুনতে পাই সত্যিই খুব আবেগিত হয়ে পড়ি। আমরা সকল ভেদাভেদ ভুলে ঐক্যবদ্ধ হলে নৌকার বিজয় নিশ্চিত হবে।