আশাশুনিতে তুচ্ছ ঘটনায় বৃদ্ধাকে ছুরিকাঘাত করে হত্যা চেষ্টার অভিযোগ


প্রকাশিত : জানুয়ারি ৮, ২০১৯ ||

পত্রদূত ডেস্ক: তুচ্ছ ঘটনায় আশাশুনির শ্বেতপুরে একবৃদ্ধাকে ছুরিকাঘাত করে হত্যা চেষ্টার অভিযোগ উঠেছে। সোমবার সকাল ৮টার দিকে আশাশুনি উপজেলা শ্বেতপুর গ্রামে এঘটনা ঘটে। এঘটনায় আহত হয়েছে বৃদ্ধার ছোট ভাই আব্দুল গণি। ওই বৃদ্ধা একই এলাকার মৃত আলী হোসেন সরদারের ছেলে মোতালেব সরদার(৬৫)।
আহত আব্দুল গণি জানান, তাদের বাড়ির সামনে নিজস্ব জমিতে সরিষা ক্ষেত রয়েছে। ওই দিন সকাল ৮টায় একই গ্রামের শাহাজান ঢালীর সেঝ ছেলে হাসান ওই সরিষা ক্ষেতে ২টি গরু ও ২টি ছাগল নামিয়ে দেয়। এসময় আব্দুল গণি হাসানকে বলে এভাবে সরিষা ক্ষেতে গরু ও ছাগল নামিয়ে দিলে হয়। অনেক টাকা খরচ করে জমিতে ফসল লাগানো হয়েছে। তা যদি গরু ছাগল খেয়ে নষ্ট করে তাহলে কিভাবে হবে। একথা বলায় হাসান ক্ষিপ্ত হয়ে আব্দুল গণিকে কিল, ঘুষি, লাথি মেরে ফোলা জখম করে করে বাড়ি চলে যায়। বাড়ি গিয়ে হাসান তার বড় ভাই শাহীন ও মা ববিতা কে ডেকে নিয়ে আসে। এসময় হাসানের ভাই শাহীন ও তার মাতা ববিতা আব্দুল গণির উপর পুনরায় হামলা করলে গণির বড় ভাই মোতালেব ছুটে আসলে শাহীনের হাতে থাকা ছুরি দিয়ে মোতালেবের মাথায় ছুরিকাঘাত করে গুরুতর আহত করে। এসময় মোতালেবের মাথায় ব্যপক রক্তক্ষরণ হতে থাকলে প্রতিবেশীরা এগিয়ে আসলে তারা পালিয়ে যায়। স্থানীয়দের সহযোগিতায় মোতালেবকে আশাশুনি উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করা হয়। সেখানে অবস্থার অবনতি হলে তাকে সাতক্ষীরা সদর হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। বর্তমানে মোতালেবের অবস্থা আশংকাজনক বলে হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ জানিয়েছেন। এঘটনায় আশাশুনি থানায় মামলা দায়েরের প্রস্তুতি চলছি বলে জানিয়েছেন আহত আব্দুলগণি।