কলারোয়ায় অশ্রæজলে সিক্ত হয়ে চিরনিদ্রায় সমাহিত হলেন ব্র্যাক ব্যাংক কর্মকর্তার পুত্র শিবিল


প্রকাশিত : জানুয়ারি ৯, ২০১৯ ||

কলারোয়া প্রতিনিধি: স্বজন ও শুভাকাঙ্খীদের অশ্রæজলে সিক্ত হয়ে চির নিদ্রায সমাহিত হলেন কলারোয়ার কৃতি সন্তান ও ব্র্যাক ব্যাংকের ভাইস প্রেসিডেন্ট শুভংকরকাটি গ্রামের কাজী আছাদুজ্জামান আছাদের বড় ছেলে কাজী আওনাফ আতিক শিবিল (১৯)। গত রোববার সন্ধ্যায় ভারতের ব্যাঙ্গালুরুর একটি হাসাপাতালে চিকিৎসারত অবস্থায় মৃত্যুবরণ করা শিবিলের মৃতদেহ কলারোয়ায় আসে মঙ্গলবার বিকেলে। ব্র্যাক বিশ্ববিদ্যালয়ের অনার্স প্রথম বর্ষের ছাত্র শিবিলের বাবা-মাকে সান্তনা দেওয়ার ভাষা হারিয়ে ফেলেন স্বজনরা। সেখানে এক শোকাবহ ও বেদনাবিধূর ভারী পরিবেশে সকলেই অশ্রæসজল হয়ে ওঠেন। আছরের নামাজ শেষে কলারোয়া ফুটবল ময়দানে প্রথম ও মরহুমের নিজ গ্রাম শুভঙ্করকাটিতে দ্বিতীয় নামাজে জানাযা শেষে পারিবারিক কবরস্থানে দাফন সম্পন্ন করা হয়। কলারোয়া ফুটবল ময়দানের নামাজে জানাযায় শরিক হন নব নির্বাচিত সংসদ সদস্য এড. মুস্তফা লুৎফুল্লাহ, উপজেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক আমিনুল ইসলাম লাল্টু, জেলা পরিষদ সদস্য আলহাজ্ব শেখ আমজাদ হোসেনসহ বিভিন্ন শ্রেণি ও পেশার বিপুল সংখ্যক মানুষ। জানাযার নামাজে ইমামতি করেন মাওলানা গোলাম রসুল শাহী। সদ্য প্রয়াত শিবিলের পিতা ব্র্যাক ব্যাংকের ভাইস প্রেসিডেন্ট কাজী আছাদুজ্জামান আছাদ উপস্থিত মুসল্লিগণের কাছে তাঁর প্রিয় সন্তানের জন্য দোয়া প্রার্থনা করেন। উল্লেখ্য, গত ৩১ ডিসেম্বর উপমহাদেশের প্রথিতযশা হৃদরোগ বিশেষজ্ঞ ডা: দেবী শেঠীর হাসপাতালে শিবিলের অস্ত্রোপচার করা হয়। কিন্তু অস্ত্রোপচারের পর থেকে ক্রমাগত শারীরিক অবস্থার অবনতি হতে থাকার এক পর্যায়ে রোববার সন্ধ্যা সাড়ে ৬টার দিকে মৃত্যুর কোলে ঢলে পড়েন সম্ভাবনাময় মেধাবী ছাত্র শিবিল। শিবিলরা দুই ভাই। ছোট ভাই আদিব (১০) স্কুলে পড়াশোনা করে। আগামী শুক্রবার জুম্মা নামাজ শেষে কলারোয়ার শুভঙ্করকাটি গ্রামের বাড়িতে আয়োজিত দোয়া অনুষ্ঠানে সকলকে শরিক হওয়ার জন্য আহবান জানিয়েছেন, প্রয়াত শিবিলের বাবা কাজী আছাদুজ্জামান আছাদ।