দেবহাটায় অর্পিত সম্পত্তির ইজারা বন্ধসহ খেলার মাঠ নির্মাণের জন্য মুক্তিযোদ্ধা সন্তান কমান্ডের আবেদন


প্রকাশিত : জানুয়ারি ১০, ২০১৯ ||

পত্রদূত রিপোর্ট: দেবহাটা উপজেলার সখিপুর মৌজার ১২০৬ খতিয়ানের ১৩৫৮ দাগের ০.৮০ একর জমিতে এলাকার গণমানুষের দাবীর প্রেক্ষিতে ভাষা সৈনিক ও বীর মুক্তিযোদ্ধা শহীদ লুৎফর রহমান সরদার স্মৃতি ফুটবল ক্রিকেট মাঠ নির্মাণের জন্য লিখিত আবেদন করেছেন জেলা মুক্তিযোদ্ধা সংসদ সন্তান কমান্ডের আহবায়ক ও শহীদ লুৎফর রহমানের ছেলে আবু রাহান তিতু। দেবহাটার সখিপুর, পারুলিয়াসহ পাশ্ববর্তী এলাকার সাধারণ মানুষ দীর্ঘদিন ধরে উক্ত তফশিল বর্নিত ০.৮০ একর সরকারী সম্পত্তিতে একটি খেলার মাঠ নির্মাণের দাবী জনিয়ে আসলেও বর্তমানে জমিটি সখিপুরের মৃত নুরালী মিস্ত্রীর দুই ছেলে প্রভাবশালী বিএনপি নেতা মনিরুজ্জামান ও জামায়তকর্মী রেজাউল সরকারী ইজারা ছাড়াই অবৈধভাবে জবরদখলে রেখে এলাকার গণদাবী বাস্তবায়নে বাঁধা সৃষ্টি করে চলেছে। তাছাড়া সংশ্লিষ্ট প্রশাসনকে ম্যানেজ করে এলাকার খেলার মাঠ নির্মাণের জন্য নির্ধারিত ওই ০.৮০ একর সরকারী সম্পত্তিটি ইজারা বহিভূত ও সম্পূর্ণ অবৈধভাবে জবর দখলে রাখার অভিযোগও রয়েছে প্রভাবশালী বিএনপি নেতা মনিরুজ্জামান ও জামায়তকর্মী রেজাউলের বিরুদ্ধে। এরই পরিপ্রেক্ষিতে এলাকাবাসীর গণদাবী মোতাবেক খেলার মাঠ নির্মাণের জন্য জেলা মুক্তিযোদ্ধা সংসদ সন্তান কমান্ডের আহবায়ক আবু রাহান তিতু গত ১২ ডিসেম্বর উপজেলা চেয়ারম্যান ও মুক্তিযোদ্ধা কমান্ডার আব্দুল গনির সুপারিশকৃত লিখিত আবেদনটি জেলা প্রশাসক এস এম মোস্তফা কামালের কাছে জমা দিলে তাৎক্ষণিকভাবে তদন্ত পূর্বক খেলার মাঠ নির্মাণের বিষয়ে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেয়ার জন্য ২৩ ডিসেম্বর দেবহাটা উপজেলা সহকারী ভূমি কমিশনার হাফিজ-আল-আসাদকে নির্দেশনা দেন জেলা প্রশাসক। কিন্তু অদ্যবধি জেলা প্রশাসকের দেয়া নির্দেশনার প্রেক্ষিতে জবরদখলকারী প্রভাবশালী বিএনপি নেতা মনিরুজ্জামান ও জামায়তকর্মী রেজাউলের বিরুদ্ধে কোন আইনি ব্যবস্থা কিংবা মাঠ নির্মাণের জন্য নুন্যতম পদক্ষেপও নেয়া হয়নি বলে অভিযোগ করেন মুক্তিযোদ্ধা সংসদ সন্তান কমান্ডের সাতক্ষীরা জেলা শাখার আহবায়ক আবু রাহান তিতু। এব্যাপারে উপজেলা সহকারী ভূমি কমিশনার হাফিজ-আল-আসাদের কাছে জানতে চাইলে তিনি বলেন, আমি এখনও মাঠ নির্মাণের নির্ধারিত স্থানটি পরিদর্শনে যাইনি, তবে যাবো। বিষয়টি তদন্তাধীন রয়েছে।