নাশকতা মামলার বিচার শুরু কড়া নিরাপত্তায় আদালতে জামায়াতের সাবেক আমীর আব্দুল খালেক


প্রকাশিত : ফেব্রুয়ারি ১১, ২০১৯ ||

নিজস্ব প্রতিনিধি: মুক্তিযুদ্ধের সময় মানবতাবিরোধী অপরাধের মামলায় সাবেক এমপি ও জেলা জামায়াতের সাবেক আমির অধ্যক্ষ মাওলানা আবদুল খালেক ম-লকে নাশকতার একটি মামলায় সাতক্ষীরা আদালতে হাজির করা হয়। হাত কড়া লাগিয়ে পুলিশ বেষ্টনির মধ্য দিয়ে সোমবার সাতক্ষীরা জজ কোর্টে একটি মামলায় চার্জ গঠনে সশরীরে হাজির করানো হয় তাকে। বর্তমানে তাকে যশোর কারাগারে রাখা হয়েছে। সাতক্ষীরা আদালতে নাশকতার একটি মামলায় তার বিরুদ্ধে বিচার চলছে।
একাত্তরের মুক্তিযুদ্ধের সময় সাতক্ষীরা সদর, আশাশুনি ও কলারোয়া থানার বিভিন্ন এলাকায় হত্যা, গণহত্যা, নির্যাতন ও ধর্ষণের মতো মানবতাবিরোধী অপরাধের অভিযোগে ২০১৫ সালের ৭ আগস্ট তার বিরুদ্ধে তদন্ত শুরু করেন আন্তজার্তিক ট্রাইব্যুনাল। ২০১৭ সালের ৫ ফেব্রুয়ারি তদন্ত শেষ ১৯ মার্চ এ মামলায় অভিযোগপত্র দাখিল করা হয়।
২০১৫ সালের ১৬ জুন সাতক্ষীরা সদর উপজেলার খলিলনগর মহিলা মাদ্রাসায় নাশকতার উদ্দেশ্যে সহযোগীদের নিয়ে গোপন বৈঠক করার সময় পুলিশ তাকে গ্রেপ্তার করে। একই বছর ২৫ আগস্ট তাঁর বিরুদ্ধে সাতক্ষীরায় দায়ের করা যুদ্ধাপরাধের তিনটি মামলার মধ্যে শহীদ মোস্তফা গাজী হত্যা মামলায় গ্রেপ্তার দেখান ট্রাইব্যুনাল। শিমুলবাড়িয়া গ্রামের রুস্তম আলীসহ পাঁচজনকে হত্যার অভিযোগে ২০০৯ সালের ২ জুলাই মাওলানা আব্দুল খালেক ম-লের বিরুদ্ধে যুদ্ধাপরাধের মামলা করেন শহীদ রুস্তম আলীর ছেলে নজরুল ইসলাম গাজী।