বেনাপোলে পাচারকালে দু’যুবতীকে গণধর্ষণের অভিযোগে ৬ যুবক আটক: দু’যুবতী উদ্ধার


প্রকাশিত : মার্চ ১২, ২০১৯ ||

বেনাপোল (যশোর) প্রতিনিধি: বেনাপোলের পটুখালি সীমান্তে ২যুবতীকে গণধর্ষণের অভিযোগে স্থানীয় ৬যুবককে আটক করেছে বেনাপোল পোর্ট থানা পুলিশ। এসময় দুই যুবতীকে উদ্ধার করেন তারা।
আটককৃতরা হচ্ছে বেনাপোলের পুটখালি গ্রামের-শমসের আলী ছেলে মোরশেদ (৩০) আলম হোসেন, ছেলে সোহেল মিয়া, আইয়ুব বিশ্বাসের ছেলে প্লাবন, আজগর আলী ছেলে আরিফুল ইসলাম, আব্দুল খালেক ছেলে আব্দল্লাহ, মোরশেদ আলী ছেলে শিমুল হোসেন। এসময় সাদেক ধাবকের ছেলে রাফুল পালিয়ে যায় বলে পুলিশ। প্রত্যেকের বাড়ি পুটখালি গ্রামে।

বেনাপোল পোর্ট থানার সাব ইন্সপেক্টর আব্দুল লতিফ জানান, চর আমরাপাড়া কুষ্টিয়ার এক গৃহবধূ ও চাঁদপুর হাজিগঞ্জের এক মেয়ে শাহানাজসহ যুবতীরা পুটখালি গ্রামে তাদের এক আত্মীয়ের বাড়িতে বেড়াতে আসে সকালে। বিকালে গ্রামের ৭ যুবক অস্ত্রের মুখে তাদের ঐ বাড়ি থেকে অপহরণ করে নিয়ে যায় একটি আম বাগানে। সেখানে তাদের ৭জন মিলে ধর্ষণ করে। এক পর্যায়ে যুবতীদের চিৎকারে মাঠে কর্মরত কৃষকরা ছুটে এসে তাদের আটক করে পুলিশে খবর দেয়। পুলিশ দ্রুত ঘটনা স্থলে গিয়ে ৭ ধর্ষককে আটক করে। যুবতীসহ আটককৃতরা বর্তমানে বেনাপোল পোর্ট থানায় পুলিশী হেফাজতে আছ্ েবেনাপোল পোর্ট থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) আবু সালেহ মাসুদ করিম জানান, আমরা ঘটনাটি শোনার সাথে সাথে ঘটনাস্থানে যাই। ঘটনার সত্যতা পেয়ে স্থানীয় জনগণের সহযোগিতায় দোষীদের আটক করা হয়েছে। এ ব্যাপারে আইননুগত ব্যবস্থা প্রক্রিয়াধীন আছে। এ ঘটনায় বেনাপোল পোর্ট থানায় একটি মামলা হয়েছে।