ঝাউডাঙ্গায় জোরপূর্বক ছিনিয়ে নেয়া এক লাখ ৪৮ হাজার টাকা উদ্ধারের দাবিতে থানায় লিখিত অভিযোগ


প্রকাশিত : এপ্রিল ৩, ২০১৯ ||

নিজস্ব প্রতিনিধি: সদর উপজেলার ঝাউডাঙ্গায় আহসান হাবিব (২১) নামে এক ব্যবসায়ীকে বেধড়ক মারপিট করে ১লাখ ৪৮ হাজার টাকা ছিনিয়ে নেয়ার অভিযোগ উঠেছে। এসময় গুরুতর জখম করা হয়েছে তার বড় ভাই শুভ বিশ্বাস (২৭) কে। এ ঘটনায় চার জনের নাম উল্লেখ করে আহত ব্যবসায়ীর মা মোছা: আছিয়া বেগম সদর থানায় একটি লিখিত অভিযোগ দায়ের করেছে। তিনি ওয়ারিয়া গ্রাামের রজব আলী বিশ্বাসের স্ত্রী।
অভিযুক্তরা হলেন, উপজেলার গোবিন্দকাটি গ্রামের মৃত, আবুল শেখের ছেলে আ: রশিদ শেখ (৩২), একই গ্রামের আ: গফ্ফারের ছেলে মো: রাসেল (২২), আব্দুল হান্নানের ছেলে আবুল খায়ের (২০) ও রফিকুল সরদারের ছেলে জাহিদ ওরফে গুন্ডা জাহিদ (২৪)।
আছিয়া বেগম লিখিত অভিযোগে জানান, গত ২৬ মার্চ বেলা ১১টার দিকে বাড়ী ফেরার পথে ব্যবসায়ী আহসান হাবিববে ঝাউডাঙ্গা সোনালী ব্যাংকের সামনের রাস্তা থেকে উক্ত আসামীরা তাকে জোরপূর্বক জিম্মি করে পার্শ্ববর্তী ঝাউডাঙ্গা প্রাথমিক বিদ্যালয় সংলগ্ন ছোট গলির মধ্যে নিয়ে যায়। পরে সন্ত্রাসীরা তাকে বেধড়ক মারপিট করে এবং তার কাছে থাকা ১লাখ ৪৮ হাজার টাকা ছিনিয়ে নেয়। অভিযোগে তিনি উল্লেখ করেন, তার বড় ছেলে শুভ বিশ্বাস ঘটনাটি জানতে পেরে সেখানে ছুটে যায়। এসময় সন্ত্রাসীরা শুভ বিশ্বাসকে লোহার রড ও জিআই পাইপ দিয়ে পিটিয়ে রক্তাত্ত জখম করে (বর্তমানে সে সাতক্ষীরা সদর হাপাতালে চিকিৎসাধীন) দ্রুত বাজারের দিকে চলে যায়। পরে ¯’ানীয়দের মাধ্যমে খবর পেয়ে এবং এলাকাবাসির সহায়তায় ঘটনাস্থল থেকে তার দুই ছেলেকে উদ্ধার করে হাসপাতালে ভর্তি করা হয়।
সদর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা বরাবর লিখিত অভিযোগে তিনি এঘটনায় উক্ত সন্ত্রাসীদের বিরুদ্ধে আইন অনুযায়ী ব্যব¯’া গ্রহন ও তার ব্যবসায়ী ছেলে আহসান হাবিবের নিকট থেকে ছিনিয়ে নেয়া এক লাখ ৪৮ হাজার টাকা উদ্ধারে প্রয়োজনীয় ব্যব¯’া গ্রহনের অনুরোধ জানান।
এ বিষয়ে জানতে অভিযুক্ত রাসেল ও আবুল খায়েরের সাথে যোগাযোগ করা হলে ফোন বন্ধ থাকায় কথা বলা সম্ভব হয়নি।