জাতীয় যুব সংহতির ৩৬তম প্রতিষ্ঠা বার্ষিকী পালন


প্রকাশিত : এপ্রিল ৩, ২০১৯ ||

নিজস্ব প্রতিনিধি: বাংলাদেশ জাতীয় যুব সংহতি ৩৬তম প্রতিষ্ঠা বার্ষিকী উপলক্ষে বর্ণাঢ্য শোভাযাত্রা কেক কাটা ও আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত হয়েছে। ‘বাংলাদেশী জাতীয়তাবাদ গণতন্ত্র অর্থনৈতিক মুক্তি’ এ সেøাগানকে সামনে রেখে জাতীয় যুব সংহতির গৌরব ও ঐতিহ্যর ৩৬তম প্রতিষ্ঠা বার্ষিকী পালন উপলক্ষে মঙ্গলবার বিকেলে কাটিয়াস্থ টাউন বাজারে জেলা জাতীয় পার্টির অস্থায়ী কার্যালয়ে অনুষ্ঠানে সভাপতিত্ব করেন সদর উপজেলা যুব সংহতির সভাপতি মো. বদরুজ্জামান বদু। জাতীয় যুব সংহতি জেলা শাখার আয়োজনে অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে বক্তব্য রাখেন, জেলা জাতীয় পার্টির সভাপতি শেখ আজহার হোসেন। বিশেষ অতিথি হিসেবে বক্তব্য রাখেন, জেলা স্বেচ্ছাসেবক পার্টির আহবায়ক আনোয়ার হোসেন আনু, জেলা ছাত্রসমাজের সভাপতি কায়ছারুজ্জামান হিমেল, সদর উপজেলা যুব সংহতির সাধারণ সম্পাদক মো. সাইফুল ইসলাম, জেলা ছাত্রসমাজের সাংগঠনিক সম্পাদক রোকনুজ্জামান সুমন, সহ-সভাপতি রিমন, রনি, যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক রাজ, মুক্তিযোদ্ধা প্রজন্ম পার্টির কেন্দ্রীয় যুগ্ম সম্পাদক এবিএম রাজিবুল্লাহ রাজু প্রমুখ। সমগ্র অনুষ্ঠান পরিচালনা করেন, জেলা যুব সংহতির সদস্য সচিব মোঃ আবু তাহের। এছাড়া অনুষ্ঠানে সম্প্রতি সড়ক দূর্ঘটনায় জেলা যুব সংহতির আহবায়ক আশিকুজ্জামান বাপ্পি গুরুতর আহত হওয়ায় তার জন্য সুস্থ্যতা কামনা করা হয়।
অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি বলেন, ১৯৮৩ সালে হুসাইন মোহাম্মদ এরশাদের হাতে গড়া প্রথম সংগঠন জাতীয় যুব সংহতি। যুব সংহতির নেতাকর্মীরা হুসাইন মোহাম্মদ ও দলের নেতাদের নীতি আদর্শ মেনেই তারা সুসংগঠিত। জাতীয় যুব সংহতি একটি আদর্শ সংগঠন। তারা কোন মাদক, সন্ত্রাস ও টেন্ডারবাজি চাঁদাবাজির সাথে জড়িত নয়। যুব সংহতির প্রতিটি নেতা দেশের মানুষের কল্যাণে কাজ করে এবং হুসাইন মোহাম্মদ এরশাদের নীতি আদর্শ মেনেই তারা দল পরিচালনা করে।