কলারোয়ায় অফিস সহকারির বেত্রঘাতে ষষ্ঠ শ্রেণির ছাত্র হাসপাতালে!


প্রকাশিত : এপ্রিল ৭, ২০১৯ ||

মনিরুল ইসলাম মনি: কলারোয়ায় খাতা দেখাতে দেরি করায় অফিস সহকারির বেত্রাঘাতে রাসেল (১১) নামে এক মাদ্রাসা শিক্ষার্থী আহত হয়েছে। তাকে কলারোয়া হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। সে উপজেলার হঠাৎগঞ্জ দাখিল মাদ্রাসার ষষ্ঠ শ্রেণির (রোলং-৬) ছাত্র ও একই এলাকার বাকসা গ্রামের আনোয়ারুল ইসলামের ছেলে। শনিবার রাত সাড়ে ৭টার দিকে গুরুতর আহত অবস্থায় রাসেলকে কলারোয়া হাসপাতালে ভর্তি করা হয়।
রবিবার সকালে হাসপাতালে চিকিৎসাধীন রাসেল জানান, মাদ্রাসার অফিস সহকারি রুহুল কুদ্দুস ষষ্ঠ শ্রেণিতে নিয়মিত গণিতের ক্লাস নেন। শনিবার তিনি ক্লাস নিতে এসে ছাত্র-ছাত্রীদের কাছে গণিত বিষয়ের খাতা দেখতে চান। এসময় সে ব্যাগ থেকে খাতা বের করতে দেরি করায় তিনি ক্ষিপ্ত হয়ে হাতে থাকা বেতের লাঠি দিয়ে এলোপাতাড়ি মারপিট করেন। একপর্যায়ে রাসেল অসুস্থ হয়ে পড়লে উক্ত শিক্ষক (অফিস সহকারি) ক্লাস শেষ না করেই অফিসে চলে যান। পরে তার দুই সহপাঠি রাকিবুল ও নাইম আহত রাসেলকে তাদের বাড়িতে রেখে আসে। উপজেলা মাধ্যমিক শিক্ষা কর্মকর্তা আব্দুল হামিদ জানান, এ বিষয়ে তিনি কিছুই জানেন না। তার কাছে কেউ অভিযোগও করেন নি।
কলারোয়া থানার ওসি (তদন্ত) জেল্লাল হোসেন বলেন, বিষয়টি তিনি জানেন না। তবে অভিযোগ পেলে তদন্ত করে ব্যবস্থা নেয়া হবে।