জেলায় কাল বৈশাখী ছোবল: ব্যাপক ক্ষয়ক্ষতি, বজ্রপাতে ৩জন আহত


প্রকাশিত : এপ্রিল ১০, ২০১৯ ||

পত্রদূত ডেস্ক: মঙ্গলবার সন্ধ্যায় জেলায় কালবৈশাখী ঝড়ে ব্যাপক ক্ষয়ক্ষতি হয়েছে। বিভিন্নস্থানে গাছগাছালি ভেঙে পড়ে। ফসলেরও ক্ষতি হয়েছে। এছাড়া আমের গুটি ঝরে পড়ে। ঝড়ের সময় বিনোরপোতা বিসিক শিল্প নগরীতে বজ্রপাতে ৩জন আহত হয়েছে।
সুত্র জানান, মঙ্গলবার সন্ধ্যায় ঝড়ো বৃষ্টির সময় বিসিকের দীপা সি ফুডে বজ্রপাতের ঘটনা ঘটে। এসময় ঘরের মধ্যে থাকা কর্মচারী ফরিদা (৪৫), রাশিদা (৫০) এবং আকিলা (২২) আহত হয়। দীপা সি ফুডের ব্যবস্থাপনা পরিচালক বলেন, ফরিদা, রাশিদা ও আকিলা কাজ করছিলো। সে সময় ছাদের উপর বজ্রপাত হলে আমাদের প্রতিষ্ঠানের ছাদ ভেঙ্গে তাদের উপর পড়ে। এতে তারা তিনজন আহত হয়। পরে তাদের উদ্ধার করে সিবি হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। আহত ফরিদার বাড়ি কালিগঞ্জে, রাশিদার বাড়ি পারুলিয়া এবং আকিলার বাড়ি সদরের মিল বাজার এলাকায়।
কলারোয়া থেকে নিজস্ব প্রতিনিধি জানান, কলারোয়ায় ঝড় ও শিলা বৃষ্টি হয়েছে। মঙ্গলবার সন্ধ্যার একটু আগ থেকে ঝড়ো বাতাস বইতে শুরু করে। সন্ধ্যার পর মুষলধারে বৃষ্টির সাথে যোগ হয় শিলাবৃষ্টি। আকাশ থেকে বৃষ্টির সাথে বরফের ছোট খন্ড পড়া অনেকে উপভোগ করলেও ধান-আম চাষীরা ক্ষতিগ্রস্থ হয়েছে। ফসলি মাঠে ধান ফুলতে শুরু করেছে। এরই মাঝে ঝড় ও বৃষ্টিতে ধানের ফলনে ব্যাপক ক্ষতি হবে বলে চাষীরা জানিয়েছেন। অনুরূপভাবে শিলাবৃষ্টিতে গাছের ছোট ছোট আম বা আমের গুটিও ঝড়ে পড়েছে ও ক্ষতিগ্রস্থ হয়েছে। মঙ্গলবার শেষ বিকেলে যথারীতি আকাশ মেঘলা হওয়ার পর থেকেই রাত সাড়ে ৯টার দিকে এ রিপোর্ট লেখা পর্যন্ত বিদ্যুত সরবরাহ বন্ধ রয়েছে। ভারি ও হালকা বৃষ্টি অব্যাহত ছিলো। সান্ধ্যকালীন স্বাভাবিক জীবনযাত্রা ব্যহত হয়।
এদিকে ঝড়ে বিদ্যুতের তারে রাস্তার পাশে থাকা গাছ পড়ে বিদ্যুতের খুটি পড়ে ব্যাপক ক্ষতি হয়েছে। মঙ্গলবার সন্ধ্যায় এ শিলা বৃষ্টিতে আম চাষীদেরও ক্ষতি হয়েছে। আমের গুটিতে শিলা বৃষ্টি পড়ায় নষ্ট হয়েছে অসংখ্য আম বাগান। এদিকে নগরঘাটা পোড়ারবাজারের পশ্চিশ পাশে রাস্তার উপরে বিদ্যুতের তারে শিশু গাছ পড়াতে বিদ্যুতের তার ছিড়ে খুটিসহ রাস্তায় পড়েছে। এ পথে যাতায়াতকারীরা মটরসাইকেল, ভ্যান, সাইকেল, ইজিবাইক, মাহেন্দ্র, পিকআপ সহ কোনো যানবাহন চলাচল করতে পারছেনা।