তালায় স্বপ্ন প্রকল্পের দ্বিতীয় পর্যায়ের কাজ শেষ


প্রকাশিত : মে ১৪, ২০১৯ ||

পাটকেলঘাটা প্রতিনিধি: স্বপ্ন প্রকল্পের আওতায় তালার সকল ইউনিয়নে অসহায় নারীরা কর্মের মাধ্যমে তাদের ভাগ্যের পরিবর্তন করে চলেছে। অনেকে কাজের ফাঁকে ফাঁকে অবসর সময়ে বাড়িতে হাতের কাজসহ নানাবিধ কাজ করছেন। উপকারভোগী পাটকেলঘাটা থানার আচিমতলা গ্রামের বিধবা নারী হাজিরা বেগম জানালেন আমি স্বপ্ন প্রকল্পে ১৮ মাস কাজ করেছি। এখন আমি অনেকটা স্বাবলম্বী। আমি বাড়িতে দর্জি কাজ, গাভী পালন, গাছের চাষসহ অনেক উন্নয়নমূলক কাজ করে যাচ্ছি। কাজ শেষে আমি সঞ্চয়ী ২২ হাজার টাকা টাকা পাব। যা দিয়ে আমি অনেক প্রয়োজন মেটাতে পারব। এই প্রকল্প আমার মত হতভাগ্য অনেক নারীর ভাগ্যের পরিবর্তন করে দিয়েছে। আমি চাই এই প্রকল্প যেন বার বার আসে এবং আমার মত অসহায় নারীরা সুযোগ পেয়ে তাদের পরিবারের স¦চ্ছলতা ফিরাতে পারে। সরুলিয়া ইউপি চেয়ারম্যান মতিয়ার রহামান বলেন, এই প্রকল্পের মাধ্যমে আমার ইউনিয়নে অনেক রাস্তাঘাট, স্কুল কলেজ মাঠ ভরাটের সংস্কার কাজ হয়েছে। সরকারের পাশাপাশি গ্রামীন জনপদের অবকাঠামোগত উন্নয়নে ভুমিকা রেখে চলেছে এই স্বপ্ন প্রকল্প। সরুলিয়া ইউনিয়নের মাঠকর্মী রেহেনা খাতুন জানান, ২০১৭ সালের ১২ নভেম্বর শুরু হওয়া কাজ ২০১৯ সালের ১১ মে আনুষ্ঠানিকভাবে শেষ হয়েছে। সরুলিয়া ইউনিয়নে ৩৬ জন দুস্থ অসহায় নারী কর্মিকে কাজের মাধ্যমে তাদের ৯টি ট্রেনিং করিয়েছি তাদেরকে স্বাস্থ্য পুষ্টি, দুর্যোগ মোকাবেলা, জেন্ডার সমতা, নারীর অধিকার জলবায়ুসহ বিভিন্ন বিষয়ে প্রশিক্ষণ দেওয়া হয়েছে। উপজেলা প্রজেক্ট কর্মকর্তা তাপস মল্লিক জানান এই প্রকল্পে জেলার ৫২টি ইউনিয়নে ১৮৭২জন শ্রমিক কাজ করেছে যার মধ্যে তালায় ৪৩২ জন শ্রমিক কাজ করেছে। ইউএনডিপির আর্থিক সহযোগিতায় এনজিও সংস্থা সুশীলন প্রকল্পটি বাস্তবায়ন করছে। দ্বিতীয় পর্যায়ের কাজ ১১ মে শেষ হয়েছে।