তালায় মাদ্রাসার জমি দখলের অভিযোগ


প্রকাশিত : মে ১৪, ২০১৯ ||

 

জালালপুর (তালা) প্রতিনিধি: তালায় মাগুরা পীর শাহ জয়নদ্দীন দাখিল মাদ্রাসার সম্পত্তি দীর্ঘদিন যাবৎ স্থানীয় প্রভাবশালী লোকেরা জবর দখল করে আসছে। এ জমি উদ্ধার করতে গেলে শুনতে হচ্ছে বিভিন্ন হুমকি। এই বিষয় প্রশাসনের উর্ধতন কর্তৃপক্ষের দ্রুত হস্তক্ষেপ কামনা করছেন মাদ্রসার কর্তৃপক্ষ।

খবরে প্রকাশ, ১৯৬২ সালে মাগুরা মৌজার সাবেক ১৩৯২ দাগ, ৮৫৭ খতিয়ানের ও  ৭১ নং জেএল নং জমি জনৈক সুরমান আলী নাম একজন দানবীর মাদ্রাসার জন্য ২৪ শতক জমি দান করে যান। এরপর থেকে মাদ্রাসাটি সঠিকভাবে পরিচালিত হচ্ছিল। কিন্তু হঠাৎ কিছুদিন ধরে এলাকার প্রভাবশালী মহল মাদ্রাসার ৬ শতক জমি দখল করে দোকান তৈরী করে ব্যবসা করে আসছে ও ৬ শতক জমি তাদের নামে লিখে দেওয়ার জন্য হুমকি দিচ্ছে ।

প্রতিষ্ঠাকালীন সদস্য জাফর আলী (৭৭) জানান, ১৯৬২ সালে সুরমান আলী ২৪ শতক জমি মাদ্রাসার জন্য দান করেন। তবে কিছুদিন যাবৎ প্রভাবশালী মহল ৪টি দোকান ঘর নির্মাণ করে ব্যবসা পরিচালনা করে আসছে এবং কোন প্রকারের ভাড়া প্রদান করে না।

মাদ্রাসার সুপার আলাউদ্দীন ও সহ-সুপার আবু বক্কর জানান, আমরা ১৯৫৮ সাল হতে সুনামের সাথে পাঠদান করে আসছি। বর্তমানে শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে প্রায় ৩০০-৩৫০ জন ছাত্র-ছাত্রী পড়াশুনা করে ১৮ জন শিক্ষক ও কর্মচারীসহ ছোট ছোট মাত্র ১০টি রুম আছে-যা দ্বারা আমাদের প্রতিষ্ঠানে শিক্ষার্থীদের পাঠদান করানো কষ্টকর হয়ে পড়ছে। তার কারণে আমরা মাদ্রাসা কর্তৃপক্ষ জেলা প্রশাসক বরাবর আবেদন করেছি। তৎকালীন জেলা প্রশাসন আবেদনের প্রেক্ষিতে জেলা প্রশাসকের আদেশক্রমে জেলা প্রশাসক (রাজস্ব) অরুন কুমার মন্ডল ২৯৭০ অধ্যাদেশের ২৭/৭০ এর প্রেক্ষিতে নোটিশ প্রেরণ করেন। সর্বশেষ ৩১ ধারা আমরা মোট ২৪ শতক জমি পেয়েছি। তবুও তারা জায়গা ছাড়ছে না।

জানতে চাইলে দোকানদাররা বলেন, আমাদের তো উচ্ছেদের নোটিশ প্রেরণ করা হয়েছে। তাহলে আপনারা কেন মাদ্রাসার জায়গা দখল করে আছেন প্রশ্নের জবাবে তারা বলেন মগের মল্লুক নাকি বললেই ছেড়ে দেব।



error: Content is protected !!