শিশু পাচার প্রতিরোধ ও সুরক্ষায় আইনী সহায়তা শীর্ষক সংবাদ সম্মেলন


প্রকাশিত : মে ১৯, ২০১৯ ||

নিজস্ব প্রতিনিধি: সাতক্ষীরায় শিশু পাচার প্রতিরোধ ও সুরক্ষায় সরকার প্রণীত ‘মানব পাচার ও দমন জাতীয় কর্মপরিকল্পনা ২০১৮-২০২২ বাস্তবায়নে মাঠ পর্যায়ে সংবাদ সম্মেলন অনুষ্ঠিত হয়েছে।
শনিবার সকালে দৈনিক সুপ্রভাত সাতক্ষীরা অফিসে ইনসিডিন বাংলাদেশের আয়োজনে এ সংবাদ সম্মেলনে লিখিত বক্তব্য পাঠ করেন ইনসিডিন বাংলাদেশের সমন্বয়কারী এড. রফিকুল ইসলাম খান।
লিখিত বক্তব্যে তিনি বলেন, আইনের যথাযথ প্রয়োগের অভাবে, পাচারকারীদের শাস্তি ও পাচারের শিকার শিশুদের ন্যায় বিচার প্রদান করা যাচ্ছে না। আর এই পরিস্থিতির আশু পরিবর্তন না হলে মানব পাচার রোধে সরকার গৃহীত জাতীয় কর্মপরিকল্পনা ২০১৮-২০২২ এর বাস্তবায়ন সম্ভব হবে না এবং শিশু সুরক্ষা নিশ্চিত করা যাবে না। সরকার ইতোমধ্যে মানব পাচার রোধে বেশ কিছু কার্যকরী পদক্ষেপ গ্রহণ করেছে এবং বেশ কিছু অগ্রগতি অর্জন করে করেছে। সরকার ২০১২ সালে মানব পাচার প্রতিরোধ ও দমন আইন ২০১২ প্রণয়নের পাশাপশি এই আনের বিধিমাল ২০১৭ প্রণয়ন করে। সাথে সাথে ২০০৮ সাল থেকে মানব পাচার বন্ধে জাতীয় কর্মপরিকল্পনা প্রণয়ন ও বাস্তবায়ন করে আসছে। এছাড়াও বিধিমালা অনুযায়ী মানব পাচার দমন জাতীয় সংস্থা গঠন করেছে। সরকারের সকল উদ্যোগ গ্রহণ সত্ত্বেও মামলা দায়ের ভিকটিম সনাক্তকরণ ঠিকমত না হওয়া, ভিকটিম কর্তৃক অভিযোগ না করা, এমনকি মামলা দায়ের করার পরও তার দীঘসূত্রিতা, দুরবর্তী কোর্টে বারবার যাতায়াত করার সুবিধা, মামলার খরচ বহন করা এবং ভিকটিম ও তার স্বাক্ষীর সঠিক নিরাপত্তা বিধানের অভাব ইত্যাদি কারণে অধিকাংশ সময় কোর্টে দায়েরকৃত মামলাগুলো উঠিয়ে নেয়া হচ্ছে বা কোর্টের বাইরে মিমাংসা করে ফেলছে। এর ফলে প্রতি বছর মানব পাচারকারীর বিচারের সংখ্যা কমতে কমতে ২০১৮ তে সাতে এতে দাড়িয়েছে। পাচারের সবোচ্চ শাস্তি মৃত্যুদন্ড হলেও আইনের ফাক দিয়ে বেরিয়ে যাচ্ছে পাচারের সাথে যুক্ত ব্যক্তিরা। বিচার হচ্ছে না সে কারণে পাচার কমছে না। পাচারের শিকার হচ্ছে অনেক সময় তাদের হয়রানি করা হচ্ছে।
সাতক্ষীরা সম্মিলিত সাংবাদিক এসোসিয়েশনের সভাপতি মীর মোস্তফা আলীর সভাপতিত্বে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন জেলা তথ্য অফিসার মোজম্মেল হক, জেলা মহিলা অধিদপ্তরের উপ-পরিচালক নাজমুন নাহার, জেলা পরিষদ সদস্য শাহনাওয়াজ পারভীন মিলি, উপজেলা মাধ্যমিক শিক্ষা অফিসার জাহিদুর রহমান, ইনসিডিন বাংলাদেশের সাতক্ষীরা প্রতিনিধি সাকিবুর রহমান প্রমুখ।
ইনসিডিন বাংলাদেশের আয়োজনে সংবাদ সম্মেলনে উপস্থিত ছিলেন, সম্মিলিত সাংবাদিক এ্যাসোসিয়েশনের সাধারণ সম্পাদক এম. বেলাল হোসাইন, সিনিয়র সদস্য মেহেদীআলী সুজয়, খন্দকার আনিসুর রহমান, সাবেক সাধারণ সম্পাদক আব্দুর রহিমসহ মাঠ পর্যায়ের বিভিন্ন সংবাদকর্মীবৃন্দ।