উন্নয়নে এগিয়ে আলফার নেতৃত্বাধীন জেলা পরিষদের ৬নং ওয়ার্ড


প্রকাশিত : জুন ১৩, ২০১৯ ||

নিজস্ব প্রতিনিধি: জেলার ৭৮টি ইউনিয়নের মধ্যে দেবহাটা উপজেলার ৫টি এবং সাতক্ষীরা সদর উপজেলার ভোমরা ইউনিয়ন নিয়ে গঠিত জেলা পরিষদের ৬নং ওয়ার্ড। এই ওয়ার্ডে ১ম বারের মত বিশিষ্ঠ ব্যবসায়ী আল ফেরদাউস আলফা সদস্য নির্বাচিত হন। তিনি সদস্য হওয়ার পর থেকে ওয়ার্ড এলাকায় ব্যক্তিগত ও জেলা পরিষদের অর্থায়নে সাধারণ মানুষের সহযোগিতার পাশাপাশি এলাকায় অবকাঠামোগত উন্নয়ন করে চলেছেন।
এরই ধারাবাহিকতায় জেলা পরিষদের চেয়ারম্যান মো. নজরুল ইসলামের পরামর্শ অনুযায়ী ২০১৮-১৯ অর্থ বছরে নওয়াপাড়া দক্ষিণপাড়া জামে মসজিদ সংস্কার বাবদ ১লক্ষ টাকা, জগন্নাথপুর পাবলিক কবর স্থান সংস্কার ১লক্ষ টাকা, আদর্শ গ্রাম জামে মসজিদ সংস্কার ১লক্ষ টাকা, ভোমরা ইউনিয়ন দাখিল মাদ্রাসা সংস্কার ১লক্ষ টাকা, লজতোলা গণকবর স্থান সংস্কার ১লক্ষ টাকা, উত্তর গোপাখালী জামে মসজিদ সংস্কার ১লক্ষ টাকা, হিজলডাঙ্গা মহাশাশন সংস্কার ১লক্ষ টাকা, হিজলডাঙ্গা শ্রীশ্রী কালী মাতা মন্দির সংস্কার ১লক্ষ টাকা, দক্ষিণ পারুলিয়া মুক্তিযোদ্ধা অফিস সংস্কার ১লক্ষ টাকা, পারুলিয়া আহছানিয়া মিশন সংস্কার ১লক্ষ টাকা, খেজুরবাড়িয়া দক্ষিণপাড়া বায়তুলনুর জামে মসজিদ সংস্কার ১লক্ষ টাকা, শাঁখরা কোমরপুর এ জি মাধ্যমিক বিদ্যালয় সংস্কার ১লক্ষ টাকা, খানাবাড়ি জামে মসজিদ সংস্কার ১লক্ষ টাকা, আমিনিয়া দাখিল মাদ্রাসা সংস্কার ১লক্ষ টাকা, হিজলডাঙ্গা দূর্গা মন্দিও সংস্কার ১লক্ষ টাকা, হজরত বেলাল রা: এর সরকারী কবর স্থান সংস্কার ১লক্ষ টাকা। এছাড়া টেন্ডারের মাধ্যমে রয়েছে ২৫ লক্ষ টাকার কাজ রয়েছে।
তাছাড়াও দেবহাটার সুবর্ণাবাদ মহাশ্মশান সংস্কার বাবদ ১লক্ষ ৫০ হাজার, শাহাজাহার মাস্টার স্মৃতি সংসদ সংস্কার ১লক্ষ, দক্ষিণ সখিপুর ঈদগাহ সংস্কার ১লক্ষ, সখিপুর ইউনিয়ন পরিষদের ১নং ওয়ার্ডে পাঁকা ড্রেন নির্মাণ ১লক্ষ, দক্ষিণ কুলিয়া গ্রামের জামাইপাড়া আনোয়ারের বাড়ি হতে পশ্চিমাটি শামসুলের বাড়ি পর্যন্ত ইটের সোলিং করণ ১লক্ষ, কুলিয়া শশাডাঙ্গা বিশ্বাস বাড়ি পাঞ্জেগানা মসজিসের উন্নয়ন বাবদ ১লক্ষ, বহেরা কলখালী মসজিদ হতে পুষ্পকাটি সাদেকের বাড়ি পর্যন্ত ইট সোলিং ১লক্ষ, দেবহাটা সদর ইউনিয়নের বাজারবাগ জামে মসজিদের উন্নয়ন কাজ ১লক্ষ, ভাতশালা মাঝেরপাড়া মদিনা জামে মসজিদের উন্নয়ন ১লক্ষ, নওয়াপাড়া ইউনিয়নের বেজোরাটি আর-রহমানের জামে মসজিদ সংস্কার ১লক্ষ, সালেমুলেরবাড়ি হতে মন্টুর বাড়ি পর্যন্ত ইটের সোলিং ১লক্ষ, কোমরপুর উত্তর পাড়া মহাশ্মশান সংস্কার ৫০ হাজার, কুলিয়া ইউনিয়নের পূজা মন্ডপ হতে প্রাইমারি স্কুলের সামনের রাস্তা ইট সোলিং ১ লক্ষ, খেজুরবাড়ীয়া ফোরকানিয়া মাদ্রাসা সংস্কার ১লক্ষ, কোমরপুর গ্রামের সুন্নতের বাড়ি হতে সফিকুলের বাড়ি পর্যন্ত রাস্তা ইট সোলিং ১লক্ষ, নোড়ারচক সার্বজনীন মহাশ্মশান সংস্কার ১লক্ষ, সখিপুর পিলের মাঠ বাবুর আলী বাড়ি হতে শেখপাড়া জামে মসজিদ গামী রাস্তা ইট সোলিং ১লক্ষ, গাজীরহাট সিএমবি রাস্তা সংলগ্ন যাত্রী ছাইনি সংস্কার ২ লক্ষ ৫০হাজার টাকা সহ সর্ব মোট ২০ লক্ষ ৫০হাজার টাকার কাজ টেন্ডারের মাধ্যমে প্রায় সমাপ্তির পথে।
এছাড়া সখিপুর মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের সাইকেল শেড ১লক্ষ, হাদিপুর কালিমন্দিরে ১লক্ষ পূর্ব কুলিয়া সার্বজনীন মন্দির সংস্কার ১লক্ষ, ধোপাডাঙ্গা মসজিদ সংস্কার ১লক্ষ, ভাতশালার জাহানপুর বাজার জামে মসজিদ সংস্কার ১লক্ষ, হিজলডাঙ্গা কালি মন্দির সংস্কার ১লক্ষ, শাখরা বায়েজখালী দাখিল মাদ্রাসা সংস্কার ১লক্ষ, হাড়দ্দহ দক্ষিণপাড়া জামে মসজিদ সংস্কার ১লক্ষ, বুইচানা পাচানিকা জামে মসজিদ সংস্কার ১লক্ষ, পারুলিয়া কসাইখানা সংস্কার ১লক্ষ, কোমরপুর ঋষিপাড়া মহাশ্মশান সংস্কার ১লক্ষ, দেবহাটা বাজার জামে মসজিদ সংস্কার ১লক্ষ টাকার কাজ করেছেন।
আর এসকল কাজ জেলা পরিষদ চেয়ারম্যান মো. নজরুল ইসলামের নির্দেশ ও পরামর্শে জেলা পরিষদের সদস্য আলফেদাউস আলফা নিজ দায়িত্বে তদারকিসহ কাজের অর্থ কোন রকম দুর্নীতি অনিয়ম ছাড়াই স্ব স্ব প্রতিষ্টান প্রধানদের হাতে পৌছে দেন।