জেলা তথ্য অফিসারের হাতে উচ্চমান সহকারি লাঞ্ছিত


প্রকাশিত : জুলাই ৮, ২০১৯ ||

মনিরুল ইসলাম মনি: তথ্য অফিসারের বিরুদ্ধে তারই অফিসের উচ্চমান সহকারিকে লাঞ্ছিত করার অভিযোগ উঠেছে। রোববার সকাল সোয়া ১১টার দিকে সাতক্ষীরা জেলা তথ্য অফিসে এ ঘটনা ঘটে।
তথ্য অফিসের উচ্চমান সহকারি লতিফুন্নাহর জানান, তিনি খুলনা জেলা অফিসের কর্মী হলেও উর্দ্বতন কর্মকর্তার নির্দেশে সাময়িকভাবে সাতক্ষীরা অফিসে কাজ করে আসছেন। তার স্বামী বিশিষ্ঠ চিত্র শিল্পী আব্দুল জলিল কয়েক মাস আগে জটিল রোগে আক্রান্ত হলে সিবি হাসপাতালে তার অপারেশন করা হয়। অপারেশনের আগে ও পরে আব্দুল জলিল কয়েক মাস ওই হাসপাতালে ভর্তি ছিলেন। স্বামীর চিকিৎসা সেবা নিয়ে ব্যস্ত থাকার একপর্যায়ে তিনি নিজেও অসুস্থ হয়ে পড়েন। সে কারণে অফিসে যেতে সামান্য ত্রুটি বিচ্যুতি হয়। বিষয়টি জানার পরও তথ্য কর্মকর্তা মোজাম্মেল হক তাকে বিভিন্ন সময় গালিগালাজ করে থাকেন। প্রতিবাদ করায় তাকে মারতে উদ্যত হয়েছেন কয়েকবার। এ সময় তাকে খুলনায় যোগদানের জন্য সব ধরনের চেষ্টা করবেন বলে তথ্য কর্মকর্তা তাকে হুমকি দেন।
লতিফুন্নাহার আরো বলেন, রোববার সকাল সোয়া ১১টার দিকে তিনি বিশেষ কাজের জন্য কথা বলতে তথ্য কর্মকর্তার অফিস কক্ষে যান। এ সময় তিনি তাকে গালিগালাজ করে বের হয়ে যেতে বলেন। তোর বদলী আদেশে ডিজি স্যার গত ২০ জুন সই করেছেন। তুই রিলিজ নিয়ে চলে যা। নইলে তোর অবস্থা ভাল হবে না বলে জানিয়ে দেন। বেরিয়ে আসতে দেরী হওয়ায় তাকে ঘাড় ধরে ধাক্কা দিতে দিতে পাশের কর্মচারিদের কক্ষের দিকে নিয়ে আসেন। এ সময় নিজেতে বাঁচাতে কর্মকর্তাকে ধাক্কা দিয়ে নিজেকে রক্ষা করেন তিনি। খবর পেয়ে তার সহকর্মীরা ছুটে এসে তাকে উদ্ধার করেন। অথচ নিজের দোষ ঢাকতে তথ্য কর্মকর্তা তার বিরুদ্ধে থানায় সাধারণ ডায়েরী করেছেন।
জানতে চাইলে জেলা তথ্য অফিসের কয়েকজন কর্মচারি বলেন, ঘটনা কি ঘটেছিল সেটা তারা দেখেননি। তবে পাশের ঘরে লুতফুন্নাহারের চিৎকার শুনে তারা ছুটে যেয়ে তাকে উদ্ধার করেন।
জানতে চাইলে সাতক্ষীরা জেলা তথ্য কর্মকর্তা মোজাম্মেল হক সাংবাদিকদের বলেন, তিনি কিছুদিন আগে লতিফুন্নাহারের সঙ্গে খারাপ ব্যবহার করেছেন ঠিকই। কিন্তু রোববার সকাল সোয়া ১১টায় হাজিরা খাতায় সই করতে এসে তার বদলীর জন্য তাকে (মোজাম্মেল) দায়ী করে ক্ষুব্ধ প্রতিক্রিয়া ব্যক্ত করে তাকে লাঞ্ছিত করেছে উচ্চমানসহকারি লতিফুন্নাহার। বিষয়টি মহাপরিচালক জাকির হোসেনকে অবহিত করার পর লতিফুন্নাহারের বিরুদ্ধে মামলা করার পরামর্শ দিয়েছেন তিনি। তবে এ ঘটনায় রোববার বিকেলে তিনি থানায় একটি সাধারণ ডায়েরী করেছেন।
জানতে চাইলে গণযোগাযোগ অধিদপ্তরের মহাপরিচালক জাকির হোসেন বলেন, মানবিক কারণে লতিফুন্নাহারকে খুলনার কর্মস্থলের পরিবর্তে দীর্ঘ সময় সাতক্ষীরা অফিসে রাখা হয়। রোববার মোজাম্মেল হকের উপর হামলার অভিযোগটির তদন্ত করে পরবর্তী ব্যবস্থা নেওয়া হবে।