শ্যামনগরে সরকারি ফেশাখালী খালে অবৈধভাবে বাঁধ নির্মাণ: পানি চলাচল বন্ধ


প্রকাশিত : July 9, 2019 ||

শ্যামনগর প্রতিনিধি: শ্যামনগরের আটুলিয়ার ফেশাখালীর খাস খালে অবৈধভাবে বাঁধ নির্মাণ করে পানি চলাচলের প্রতিবন্ধকতা সৃষ্টি করেছে মৎস্য ঘের মালিকগণ। স্থানীয়রা জানান, গত ৭ জুলাই একই এলাকার মৎস্য ঘের মালিক মিজান, শাহজাহান, মাছুম, মারুফ ও নান্টুসহ কতিপয় ঘের মালিক সংঘবদ্ধ হয়ে ফেসাখালী সরকারি খাস খালে আড়াআড়িভাবে বাঁধ দিয়ে পানি চলাচল বন্ধ রেখেছে। মোকছেদ মোড়লের ঘের এবং অপর পাশ্বে মাছুমের ঘের সংলগ্ন ফেশাখালী খালে বাঁধ নির্মাণ করেছে। যুগ যুগ ধরে ফেশাখালী খাল হতে ঝুরঝুরিয়া খালে পানি পতিত হয়ে এলাকার লোকজন সুবিধা লাভ করে আসছে। এতদ্বাঞ্চলে মৎস্য ঘের ও ধান চাষের কয়েক হাজার বিঘা জমির পানি সরবরাহের একমাত্র পথ ফেশাখালী খাল। অথচ পানির প্রবাহমান রুদ্ধ করায় অনেক ঘের মালিক ও কৃষকরা পড়েছে বিপাকে। যার ফলে কৃষি ফসল ও মৎস্য ঘেরের ব্যাপক ক্ষতির সম্মুখিন। আসন্ন বর্ষা মৌসুমে জলাবদ্ধতা সৃষ্টি হবে। বন্যায় মৎস্য ঘের ও কৃষি ফসলসহ এলাকায় পানি সরবরাহ না করতে পারায় অপূরণীয় ক্ষতি হবে বলে এলাকাবাসী জানিয়েছেন। ঘের মালিকগণ জানান, মৎস্য ঘেরে পানি রাখতে কর্তৃপক্ষকে না জানিয়ে তারা এ বাঁধ নির্মাণ করেছেন। এ ব্যাপারে আটুলিয়া ইউনিয়ন ভূমি তহসিলদার মোশারফ হোসেন জানান, অবৈধভাবে বাঁধ নির্মাণ করার খবর পেয়েছি, জড়িতদের আইনী আওতায় আনতে ঘটনাস্থলে দ্রুত তদন্তে যাওয়া হবে। যথাযথ কর্তৃপক্ষের নিকট এলাকাবাসী দ্রুত খাস খাল ফেসাখালী থেকে অবৈধ বাঁধ অপসরণের দাবি করেছেন।