শ্যামনগরে জমি বিরোধে থানায় জিডি


প্রকাশিত : জুলাই ১০, ২০১৯ ||

শ্যামনগর প্রতিনিধি: শ্যামনগরের হাওয়ালভাঙ্গীতে সহোদর ভাইদের মধ্যে জমি বিরোধকে কেন্দ্র করে ভবিষ্যতে নিরাপত্তার জন্য থানায় জিডি করা হয়েছে। জিডি নং-১০৬৯। হাওয়ালভাঙ্গী গ্রামের আলহাজ্ব ওয়াহেদ বক্স সরদারের পুত্র মো. আলিমুদ্দীন জিডি করেন। জিডি সূত্রে প্রকাশ, আটুলিয়া মৌজার ১০৭ নং জেএল নম্বরে ২১৩১,২১০৮ ও ২১৩৭ দাগ নম্বরে ২.০৯ একর জমির মধ্যে ১.২৯ একর জমি নিয়ে বিরোধ বাঁধে। আলিমুদ্দীনের বড় ভাই আব্দুল জব্বার ও ছোট ভাই মহাসিন লাভ ও লোভের বশবর্র্তী হয়ে যোগসাজসে রেজিস্ট্রি কোবলাকৃত জমি অবৈধভাবে দখল করতে চেষ্টা করে। আলিমুদ্দীন জমি ক্রয় করে দীর্ঘদিন যাবৎ ধান্য চাষাবাদ করে ভোগদখল করে আসছে। অথচ গত ২৫ জুন মহাসিন ও জুব্বার আলিমুদ্দীকে জমির বিষয়ে কথা কাটাকাটির এক পর্যায়ে মারধর করতে উদ্যত হয়। এ সময় তারা জোরপূর্বক জমি দখল মিথ্যা মামলা জড়ানোসহ হুমকী প্রদর্শন করে। এ থেকে পরিত্রান পেতে আলিমুদ্দীন শ্যামনগর থানায় সাধারণ ডায়েরী করেন। এর সূত্র ধরে গত ২৭ জুন আঃ জব্বার ও তার পুত্র আঃ কাদের, মহাসিন ও তার পুত্র আব্দুল¬্যাহ সহ অজ্ঞাত নামা ৪/৫ জন উক্ত জমি দখল করতে দা, লাঠি, লোহার রড, শাবল , কোদাল নিয়ে জোরপূর্বক মাটি দিয়ে ভেড়ী নির্মান করতে থাকে। এতে আলিমুদ্দীনের পুত্র কামরুজ্জামান, আলিমুদ্দীনের ভাই দীন মোহাম্মদ বাঁধা দিতে গেলে তাদেরকে ব্যাপক মারপিট ও রক্তাক্ত জখম করে। স্থানীয়রা কামরুজ্জামানকে উদ্ধার করে শ্যামনগর হাসপাতালে ও দীন মোহাম্মদকে ক্লিনিকে ভর্তি করে। বর্তমানে কামরুজ্জামান শ্যামনগর হাসাপাতালে চিকিৎসাধীন রয়েছে। এ ঘটনায় শ্যামনগর থানায় এজাহার দাখিল করা হয়েছে। এ ব্যাপারে শ্যামনগর থানায় মামলার প্রস্তুতি চলছিল।