নগরঘাটায় স্ত্রীর উপর অভিমানে স্বামীর আতœহত্যা


প্রকাশিত : জুলাই ১০, ২০১৯ ||

নিজস্ব প্রতিনিধি: তালা উপজেলার নগরঘাটা ইউনিয়নে স্ত্রীর উপর অভিমান করে গলায় রশি দিয়ে স্বামী আত্মহত্যা করেছে। মঙ্গলবার রাত ৭.৩০ টার দিকে এ ঘটনা ঘটে বলে জানা গেছে। নিহত ব্যক্তি নগরঘাটা ইউনিয়নের কার্পাসডাঙ্গা গ্রামের কার্তিক বৈদ্যের ছেলে দুলাল বৈদ্য (৪৫)।
স্থানীয় সূত্রে জানা গেছে, দুলাল ২টি বিয়ে করে। প্রথম স্ত্রী গীতা বৈদ্যের এক ছেলে-মেয়ে নিয়ে সংসার ভালোই চলছিল।কিন্তু প্রায় ৮ বছর আগে পরিচয় হয় এনজিও কর্মী মুক্তা বৈদ্যের সাথে। প্রথমে এনজিও থেকে লোন,তার পর প্রেম ভালোবাসা এরপর বিয়ে করেন তারা। এলাকাবাসীর সূত্রে জানা যায়, প্রায়ই তাদের মধ্যে কিস্তির টাকা দেওয়া নিয়ে ঝগড়া লেগেই থাকতো।
আর্থিক অভাবের মধ্য দিয়ে তার দিন অতিবাহিত হতে থাকে। কিছুটা ঋণের টাকা পরিশোধের জন্য পার্শ্ববর্তী সুনিলের ছেলে স্বদেশের কাছে তার ঘরে থাকা ফ্রিজ বিক্রয় করে দেয়। মঙ্গলবার সন্ধ্যায় দুলাল ফ্রিজটি বাড়ি থেকে বের করে বিক্রির উদ্দেশ্যে নিয়ে যেতে চাই। কিন্তু দুলালের দ্বিতীয় স্ত্রী মুক্তা বৈদ্য ঘর থেকে ফ্রিজটি বের করতে বাঁধা প্রয়োগ করেন।এতে করে স্বামী-স্ত্রীর মধ্যে ঝগড়া শুরু হয়। এক পর্যায়ে লোকচক্ষুর অন্তরালে দুলাল ঘরের সিলিং ফ্যানের সাথে রশি দিয়ে আত্মহত্যা করে।
এ বিষয়ে পাটকেলঘাটা থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মো. রেজাউল ইসলাম রেজা বলেন, থানা পুলিশ খবর পেয়ে দুলালের লাশ উদ্ধার করে। লাশ ময়না তদন্তের জন্য সদর হাসপাতালে প্রেরণ করা হয়।