বিশ্ব জনসংখ্যা দিবস উপলক্ষে র‌্যালি ও সভা


প্রকাশিত : জুলাই ১২, ২০১৯ ||

নিজস্ব প্রতিনিধি: ‘জনসংখ্যা ও উন্নয়নে আন্তর্জাতিক সম্মেলনের ২৫ বছর, প্রতিশ্রুতির দ্রুত বাস্তবায়ন’ এই স্লোগানে বিশ্ব জনসংখ্যা দিবস-২০১৯ উপলক্ষে র‌্যালি ও আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত হয়েছে। জেলা পরিবার পরিকল্পনা কার্যালয় এ কর্মসূচির আয়োজন করে। বৃহস্পতিবার সকালে দিবসটি পালন উপলক্ষে সাতক্ষীরা জেলা প্রশাসকের কার্যালয়ের সামনে থেকে একটি বর্ণাঢ্য র‌্যালি বের হয়। র‌্যালিটি শহরের গুরুত্বপূর্ণ সড়ক প্রদক্ষিণ শেষে জেলা প্রশাসকের সম্মেলন কক্ষে আলোচনা সভায় মিলিত হয়। র‌্যালি পরবর্তী আলোচনা সভায় জেলা পরিবার পরিকল্পনা কার্যালয়ের উপ-পরিচালক রওশন আরা জামানের সভাপতিত্বে প্রধান অতিথি হিসেবে বক্তব্য রাখেন অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক (সার্বিক) মো. বদিউজ্জামান। আলোচনা সভায় বিশেষ অতিথি হিসেবে বক্তব্য রাখেন, সদর উপজেলা চেয়ারম্যান আসাদুজ্জামান বাবু। জেলা স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা ডা. আবুল হোসেন, মেডিকেল অফিসার (ক্লিনিক) ডা. লিপিকা বিশ্বাস, উপজেলা স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তার কার্যালয়ের পরিসংখ্যান সহকারি মো. ফারুক হোসেন, সুর্যের হাসি ক্লিনিকের ম্যানেজার মফিকুল ইসলাম প্রমুখ। এসময় বক্তারা বলেন, ‘বিশ্বের সাথে তাল মিলিয়ে বাংলাদেশ আজ দূর্বার গতিতে এগিয়ে যাচ্ছে। জনসংখ্যা বৃদ্ধি রোধ হয়েছে পরিকল্পিত কর্মপরিকল্পনা গ্রহণের ফলে। জনসংখ্যা এখন অভিশাপ নয়। প্রশিক্ষণ ও প্রযুক্তির মাধ্যমে জনসংখ্যাকে জনশক্তিতে পরিণত করতে হবে’। সভায় কর্ম-দক্ষতা ও সেবাদানে বিশেষ অবদানের জন্য মাঠ কর্মীদের মাঝে পুরস্কার প্রদান করা হয়। মাল্টি মিডিয়া প্রজেক্টরের মাধ্যমে দিবসের মূল প্রতিপাদ্য উপস্থাপন করেন মেডিকেল অফিসার ডা. মো. আমিনুল ইসলাম।
কাব স্কাউট ও স্কাউটকদের বৃক্ষরোপন কাব স্কাউট ও স্কাউটকদের অংশগ্রহণে বৃক্ষরোপন ও র‌্যালি অনুষ্ঠিত হয়েছে। বাংলাদেশ স্কাউটস সাতক্ষীরা সদর উপজেলার আয়োজনে বৃহস্পতিবার সকাল ১০টায় সদর উপজেলা চত্বর থেকে শুরু হয়ে শহরের বিভিন্ন সড়ক প্রদক্ষিণ শহীদ আব্দুর রাজ্জাক পার্কে গিয়ে শেষ হয়। র‌্যালিতে অতিথি হিসেবে অংশগ্রহণ করেন, সাতক্ষীরা সদর উপজেলা নির্বাহী অফিসার দেবাশিষ চৌধুরী। বিশেষ অতিথি ছিলেন সদর উপজেলা স্কাউটসের কমিশনার আব্দুর রাজ্জাক, সম্পাদক কাজী আফজাল বারি। এছাড়া সদর উপজেলার মাধ্যমিক ও প্রাথমিক স্কুলের শিক্ষক, স্কাউট ও কাব স্কাউটসের সদস্যবৃন্দ উপস্থিত ছিলেন। পরে বিভিন্ন ফলজ ও ঔষধী গাছের এক হাজার সাতশত গাছের চারা বিতরণ করা হয়। প্রেস বিজ্ঞপ্তি